শেরপুর উপজেলা

বগুড়া শেরপুরে ছুরিকাঘাত করে অটোরিক্সা ছিনতাইয়ের ঘটনায় আটক ২

বগুড়ার শেরপুরে শাহবন্দেগীইউনিয়নের আঞ্চলিক সড়কে রিক্সা চালক জেল হক (৩০) কে গলা ও হাতে ছুরিকাঘাত করে অটোরিক্সা ছিনতাই করে নিয়ে যাওয়ার ঘটনার ২৪ ঘন্টার মধ্যে ছিনতাই হওয়া রিক্সা, ব্যবহৃত ছুরিসহ দুই যুবককে গ্রেফতার করেছে শেরপুর থানা পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, বাগেরহাট জেলার মংলা উপজেলার কানাইনগর গ্রামের টিটু হাওলাদারের ছেলে সাগর হাওলাদার (২৩) ও শেরপুর উপজেলা উলিপুর নতুনপাড়া গোরস্থান এলাকার মৃত আব্দুল রহমানে ছেলে নয়ন ইসলাম (২৫)।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার (২ সেপ্টেম্বর) রাত্রি ১১ দুইজন যুবক শাহবন্দেগী ইউনিয়নের খন্দকার টোলা মাজার এলাকা থেকে ফাঁসিতলা যাওয়ার কথা বলে রিক্সায় উঠে। পরবর্তীতে ফাঁসিতলা না গিয়ে তারা হামছায়াপুর কাঁঠালতলা আসার কথা বলে। কিছুদূর আসার পর মসজিদের পাশে খন্দকারটোলা দক্ষিনপাড়া নির্জন এলাকা পেয়ে পেছন থেকে এক যুবক রিক্সা চালক উচড়ং গ্রামের খয়বর হোসেনের ছেলে জেল হককে গলায় ছুরিকাঘাত করে। রিক্সা চালক জেল হক জীবন বাঁচার তাগিদে দৌড় দিয়ে পালানোর চেষ্টা করলে ছিনতাইকারীরা এলোপাতাড়িভাবে তাকে ছুরিকাঘাত করে এবং রিক্সাটি নিয়ে চলে যায়। তার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে তাকে রাস্তায় রক্তমাখা অবস্থায় উদ্ধার করে প্রথমে শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসে। সেখানে অবস্থা আশঙ্কাজন হওয়ায় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে শজিমেকে স্থানান্তর করা করে।

শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ শহিদুল ইসলাম জানান, শুক্রবার শাহবন্দেগী ইউনিয়নের আঞ্চলিক সড়কে জেলহকের গলা হাতে ছুরিকাঘাত করে তার অটোরিকশাটি ছিনতাই করে যাত্রীবেশী দুই ছিনতাইকারী। ঘটনার পর ওই রাত থেকেই তাদের আটকে অভিযান শুরু করে থানা পুলিশ। শুক্রবার সন্ধ্যানাগাদ পাশের রায়গঞ্জ উপজেলায় আটক করা হয় ছিনতাইয়ে জড়িত সাগর হাওলাদার ও নয়ন ইসলামকে। তাদের কাছ থেকে জব্দ করা হয়েছে ছুরি এবং ছিনতাই হওয়া রিকশাটি। আটক সাগরের বাড়ি বাগেরহাটের মোংলা উপজেলায় আর নয়নের বাড়ি শেরপুরের উলিপুরে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button