দুর্ঘটনা

বগুড়া বাদুড়তলায় ৪তলা বাড়ির বেলকুনি থেকে পরে বৃদ্ধার মৃত্যু

বগুড়া শহরের তিব্বতের মোড় বাদুড়তলা এলাকায় ৪ তলা বাড়ির বেলকুনি থেকে পরে যেয়ে রেহেনা বেওয়া (৬০) বৃদ্ধ মহিলা মারা গেছেন। শনিবার বিকেল আনুমানিক সাড়ে ৫টার সময় এঘটনা ঘটে।

তিনি গাইবান্ধা জেলার সাঘাটা থানার জুমারবাড়ী এলাকার মৃত নুরুল ইসলামের স্ত্রী।

পরে তার নাতি মিনহাজ আহমেদ তাকে সিএনজিতে উদ্ধার করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন৷

মৃতের নাতি মিনহাজ জানায়, তার বাবা জয়পুরহাটের ক্ষেতলাল থানায় কর্মরত একজন পুলিশ সদস্য। বগুড়ায় শহরে তার ও তার বোনের পড়ালেখার সুবাধে তারা তিব্বতের মোড়ের মৃত আব্দুল আজিজের ৪ তালা বাড়িতে ভাড়া থাকেন।
জয়পুরহাটের কালাই এ আজ তার মায়ের বোনের বাড়িতে দাওয়াত থাকায় তার মা-ফুপু ও বোন দাওয়াতে যায়। তার দাদিকে নিয়ে বাড়িতে সে একায় ছিল। বিকেলে নাস্তা নেওয়ার জন্য সে বাহিরে গেলে প্রতিবেশি এক বাসীন্দা তাকে খবর দেয় তার দাদি ৪ তলা থেকে নিচে পরে গেছে।
খবর পেয়ে সে দ্রুত বাড়ির সামনে এসে দাদিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়।
বাড়ির মালিক রেজিনা ফেরদৌস জানান, রেহেনা বেওয়ার ছেলে পুলিশ সদস্য রায়হান ৩বছর আগে বাড়ির ৪তালায় ভাড়া নেন।
তার স্ত্রী ও সন্তানেরা এখানে থাকতো।
বিকেলে হৈ-চৈ শুনে নিচে এসে দেখতে পারেন তিনি বাড়ির নিচে পরে আছেন।
তিনি আরও জানান, রেহেনা বেওয়া দীর্ঘদিন অসুস্থ ছিলেন। এর আগেও দু’বার স্টোক করেছিলেন।

স্থানীয়রা জানান, বিকেলে মৃত রেহেনা বেওয়া
বাড়ির বেলকুনিতে এসে নিচে পরে যাওয়া লাঠি খুঁজতে থাকেন। এসময় হটাৎ তিনি নিচে পরে যান।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা জানান, খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়। স্থানীয়দের সাথে কথা বলে আমরা নিশ্চিত হয়েছি এটি দূর্ঘটনা। কারও কোন অভিযোগ না থাকায় লাশটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button