খেলাধুলা

বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ভেনেজুয়েলাকে উড়িয়ে দিলো আর্জেন্টিনা

কোপা আমেরিকার শিরোপা জয়ের পর প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ভেনেজুয়েলার বিপক্ষে মুখোমুখি হয় আর্জেন্টিনা। তাই স্বাভাবিকভাবে সমর্থকদের প্রত্যাশা ছিল আকাশচুম্বী। সমর্থকদের সেই প্রত্যাশার প্রতিফলন ঘটিয়ে ভেনেজুয়েলাকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে আলবিসেলেস্তেরা। 

দলের হয়ে গোল করেছেন লাউতারো মার্তিনেস, আনহেল কোরেয়া ও হোয়াকিন কোরেয়া। লিওনেল মেসি গোল না পেলেও বরাবরের মতো নিয়ন্ত্রণ করেছেন পুরো ম্যাচ।

শুক্রবার সকালে ভেনেজুয়েলার ঘরের মাঠে জার্সিতে কোপা আমেরিকা চ্যাম্পিয়নের ব্যাজ লাগিয়ে নামে আর্জেন্টিনা। প্রায় পুরোটা সময় ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিজেদের হাতে রাখে চ্যাম্পিয়নরা। ম্যাচের ৩২ মিনিটে মেসিকে বিপজ্জনক ফাউল করে ভেনেজুয়েলার আদ্রিয়ান মার্তিনেস সরাসরি লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন। 

প্রথমার্ধের অতিরিক্ত যোগ করা সময়ের দ্বিতীয় মিনিটে গোল করে দলকে এগিয়ে নেন লাউতারো মার্তিনেস। লো সেলসোর এগিয়ে দেয়া বল ডি-বক্সে একাই পেয়ে যান তিনি।  চমৎকার প্লেসিং শটে ব্যবধান ১-০ করেন ইন্টার মিলানের এ তারকা ফরোয়ার্ড। ওই এক গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় আর্জেন্টিনা।

দ্বিতীয়ার্ধে আক্রমণের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় আর্জেন্টিনা। দলের দ্বিতীয় গোলে অবদান ছিল মেসির। ৭১ মিনিটে তার পাস খুঁজে পায় বক্সে থাকা মার্তিনেসকে। মার্তিনেস নিজে শট না নিয়ে বল ছাড়েন হোয়াকিন কোরেয়ার উদ্দেশে। জোরালো শটে দলের লিড দ্বিগুণ করেন এ ফরোয়ার্ড।

তৃতীয় গোলের দেখাও পেতেও খুব বেশি সময় লাগেনি স্ক্যালোনির দলের। মেসির পাস থেকে পাওয়া বলে লাউতারোর করা জোরালো শট ভেনেজুয়েলা গোলরক্ষক সামলালেও আয়ত্বে রাখতে পারেননি, ফিরতি চেষ্টায় আনহেল কোরেয়া বল জালে পাঠান। ৩-০ গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। বদলি নেমে শেষ দিকে ব্যবধান আরও বাড়ানোর সুযোগ পেয়েছিলেন দিবালা। তবে তার শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক ফারিনেস।

যোগ করা সময়ের চতুর্থ মিনিটে পানেনকা স্পট কিকে একটি গোল শোধ করেন সতেলদো। তিনি নিজেই বক্সে ফাউলের শিকার হলে দীর্ঘক্ষণ ভিএআরে দেখে ভেনেজুয়েলাকে পেনাল্টি দেন রেফারি।

সাত ম্যাচ শেষে চার জয় ও তিন ড্রয়ে আর্জেন্টিনার পয়েন্ট হলো ১৫।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button