বগুড়া জেলা

বগুড়ায় সীমিত পরিসরে পালিত হলো জন্মাষ্টমী

জন্মাষ্টমী বা কৃষ্ণজন্মাষ্টমী প্রতিবছর ভাদ্র মাসের কৃষ্ণপক্ষের অষ্টমী তিথিতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মতিথি উপলক্ষে পালন করা হয়। হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের কাছে এই দিনটির একটি বিশেষ গুরুত্ব আছে। প্রাচীন কাল থেকেই ভারত সহ আরো কয়েকটি দেশে অত্যন্ত উৎসাহের সাথে জন্মাষ্টমী পালন হয়ে আসছে। এই দিন ভগবান শ্রী কৃষ্ণের শিশু রূপ গোপালের পূজা করা হয়। ভক্তরা সারাদিন উপবাস থেকে হরিনাম জপ, ভজন কীর্তন ও অভিষেক দর্শন করে ব্রত পালন করে থাকেন।

বগুড়ায় সীমিত পরিসরে পালিত হলো জন্মাষ্টমী উৎসব।করোনার কারণে শ্রীকৃষ্ণের আবির্ভাব তিথি হিন্দু সম্প্রদায়ের অন্যতম ধর্মীয় উৎসব জন্মাষ্টমীতে এবার আয়োজন করা হয়নি কোনো শোভাযাত্রার।

সোমবার বেলা ১২ টায় হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাস্ট বগুড়া জেলা কার্যালয়ের আয়োজনে শহরের চেলোপাড়া নববৃন্দাবনপাড়া হরিবাসর মন্দিরে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের ৫২৪৭ তম শুভ আবির্ভাব তিথি উপলক্ষে দেশ ও জাতির মঙ্গল কামনায় বিশেষ প্রার্থনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

উক্ত আলোচনা সভায় হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাস্ট সভাপতি অংকুরজিত সাহার সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বগুড়া জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক।

এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বিপিএম বার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) উজ্জ্বল কুমার ঘোষ, বগুড়া জিলা স্কুলের প্রধান শিক্ষক শ্যামপদ মুস্তফি, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি ডাঃ এন সি বাড়ই, বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি দিলীপ কুমার দেব, সাধারণ সম্পাদক সাগর কুমার রায়, পৌর কমিটির সভাপতি পরিমল প্রসাদ রাজ প্রমুখ।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button