আইন ও অপরাধ

বগুড়ায় অটোভ্যান চালক হত্যা মামলায় গামছা পার্টির ৪ সদস্য গ্রেফতার

খুব সহজে এবং তুচ্ছ বিষয়ে তারা মানুষকে নির্দ্বিধায় মেরে ফেলতে পারে। বগুড়াসহ আশেপাশের জেলাগুলোয় তারা প্রায়ই অপরাধ করে বেড়ায়। এসবের মধ্যে চালককে হত্যা করে অটোরিকশা ছিনতাইয়ের ঘটনা তাদের অন্যতম।

আদমদীঘি উপজেলায় ভ্যানচালককে খুনের অভিযোগে চারজনকে গ্রেফতারের পর রোববার এক সংবাদ সম্মেলনে বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী এমন কথা বলেন।

আজ সকাল ১১টায় বগুড়া জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন এসব কথা বলেন তিনি।

এর আগে,গতকাল শনিবার আদমদীঘি থানা পুলিশের যৌথ অভিযানে ছিনতাই চক্রের চারজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতরা হলেন, আদমদীঘি উপজেলার জিনইর গ্রামের মো. রানা (২৫), মো. জনি (১৯), কোমারপুর গ্রামের মিঠু (২২) এবং জয়পুরহাটের আক্কেলপুর উপজেলার ঢেকুঞ্চা গ্রামের মো. শাহীন (৩৫)।

গত ২ জুন আদমদীঘি উপজেলার নশরতপুর ইউনিয়নে মো. শাহিন আলম (২৭) নামে একজনকে খুন করে তার ব্যাটারিচালিত ভ্যান ও নগদ টাকা ছিনতাই করে অজ্ঞাতরা।

জেলা পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা খুনের বিষয়টি স্বীকার করেছেন।এছাড়া চালককে হত্যা করে ছিনতাই করা সেই অটো ভ্যান বিক্রি করে মিঠু তিন হাজার এবং অন্যরা সবাই একহাজার টাকা করে ভাগ করে নেয়।

তিনি আরো বলেন,হত্যাকান্ডের সময় পিছন থেকে একজন গামছা দিয়ে ভ্যান চালকের গলায় ফাঁস দেয়। আর অন্যান্যরা হাত ও পা রশি দিয়ে বেঁধে রাস্তার পার্শ্বে জমিতে নিয়ে যায়। সেখানে শ্বাসরোধ করে হত্যার পর তারা ভ্যান নিয়ে পালিয়ে যায়।

পুলিশ সুপার আরও জানান, গ্রেফতারকৃত গামছা পাটির সদস্যরা ঘন ঘন স্থান পরিবর্তন করে অপরাধ সংগঠিত করতো। তাদের সাথে আরও কেউ জড়িত আছে কিনা বিষয়টি জানার জন্য গ্রেফতারকৃতদের ৭দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে। পাশাপাশি এইধরণের আরও সব চক্রকে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button