স্বাস্থ্য

হঠাৎ কেন মাথা ব্যথা হয়?

মাথা আছে বলেই ব্যথা করাটা মোটেও অস্বাভাবিক কিছু নয়। মাথাব্যথা কম বা বেশি আমরা সবাই ভোগ করি। অর্থাৎ আমাদের সবারই এ ব্যথা হয়। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার রিপোর্ট অনুযায়ী, প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে প্রায় অর্ধেক মানুষ প্রতিবছর কোনো না কোনো কারণে মাথাব্যথায় আক্রান্ত হয়ে থাকে। মাথাব্যথা আমাদের অহরহ হয়, একটু চিমটির মতো ব্যথা থেকে শুরু করে পাগল হয়ে মাথা ফাটিয়ে ফেলার মতো ভয়াবহ মাত্রারও হতে পারে। কিন্তু কখনো কি আমরা ভেবে দেখেছি, এই মাথাব্যথা কেন হয়?

মাথাব্যথার কারণ

বিশেষজ্ঞদের মতে, মাথাব্যথা দুই রকমের হয়- প্রাইমারি মাথাব্যথা এবং সেকেন্ডারি মাথাব্যথা। যখন মাথা ব্যথার পেছনে কোনো গভীর শারীরিক সমস্যা না থাকে তাকে প্রাইমারি মাথাব্যথা বলে আর সেকেন্ডারি মাথাব্যথার পেছনে বিভিন্ন শারীরিক সমস্যা যেমন- জ্বর, মাথায় আঘাত, টিউমার, দাঁতের সমস্যা অথবা সাইনাসের বিভিন্ন সমস্যা থাকতে পারে।

প্রাইমারি মাথাব্যথার প্রধান কারণগুলোর মধ্যে রয়েছে- মাইগ্রেনের সমস্যা, দুশ্চিন্তা এবং ক্লাস্টার।

মাইগ্রেনের মাথাব্যথা প্রচণ্ড ভয়াবহ মাত্রার মাথাব্যথা। মাইগ্রেনের মাথাব্যথা হয় যখন আমাদের মস্তিস্কের সেরিব্রাল কর্টেক্সের বিভিন্ন রক্ত চলাচল কমে যায়। মাইগ্রেনের সমস্যায় আক্রান্ত রোগী আলো এবং আওয়াজে অনেক সেনসিটিভ হন। এ ছাড়া তারা মাথাব্যথা, বমি বমি ভাব এবং মাথার এক পাশে অসহনীয় ব্যথা অনুভব করেন। টেনশনের কারণে যে মাথাব্যথা হয় তা মাথাজুড়ে হয়। এই মাথাব্যথা হয় যখন মাথার ও ঘাড়ের পেশিগুলোর ওপর ইমোশনাল বা অন্যান্য চাপ পড়ে।

ক্লাস্টার মাথাব্যথা

কয়েক সপ্তাহ অথবা মাস পর পর ফিরে ফিরে আসে। এই মাথাব্যথা মাথার এক সাইডে অথবা চোখের চারপাশে হয়। এই মাথাব্যথার কারণ অজানা। কিন্তু শরীরের রক্তপ্রবাহ অথবা মদ্যপানজনিত কারণ এই মাথাব্যথার কারণ হতে পারে।

লক্ষণগুলো

সাধারণত মস্তিষ্কে রক্তের অপর্যাপ্ত সরবরাহ মাথাব্যথার কারণ কিন্তু অতিরিক্ত রক্তপ্রবাহও মাথাব্যথার কারণ হতে পারে। অনেক মাথাব্যথা ওষুধে ক্যাফেইন থাকে যা মস্তিষ্কে রক্ত সরবরাহের মাত্রা কমিয়ে দিয়ে মাথাব্যথা কমাতে সাহায্য করে। তাই যারা নিয়মিত কফি খায় দেখা যায় তারা হঠাৎ করে কফি খাওয়া বন্ধ করে দিলে তাদের প্রচণ্ড মাথাব্যথা হয়। কারণ হঠাৎ করে তাদের মাথায় অতিরিক্ত রক্ত প্রবাহের সৃষ্টি হয়। এই গেল প্রাথমিক বা প্রাইমারি মাথাব্যথার কারণ আর সেকেন্ডারি মাথাব্যথা হয় যখন কেউ কোনো অসুখে যেমন টিউমার, ভাইরাস জ্বর, মাথায় তীব্র আঘাত ইত্যাদি অসুখে আক্রান্ত হয় তখন।

চিকিৎসা

মাথাব্যথা স্বাভাবিক ব্যাপার সাধারণত একটা ভালো ঘুম দিলে অথবা ব্যথার ওষুধ খেলেই মাথাব্যথা ভালো হয়ে যায়। কিন্তু আপনি যদি কিছুদিন পর পরই মাথাব্যথায় আক্রান্ত হন তা হলে আপনার উচিত একজন বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া। কারণ রোগ যতই সহজ আর ছোট হোক তাকে দীর্ঘদিন জিইয়ে রাখা বোকামি।

লেখক : অধ্যাপক, নিউরোলজি বিভাগ, ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব নিউরোসায়েন্সেস ও হাসপাতাল

চেম্বার : পপুলার ডায়াগনস্টিক সেন্টার লি., শ্যামলী শাখা, ঢাকা

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button