বিনোদন

পরীমনির মুক্তির দাবিতে সমাবেশ

বনানী থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনের মামলায় নায়িকা পরীমণিকে তৃতীয় দফা রিমান্ড শেষে আদালতে হাজির করা হয়েছে। আজ শনিবার (২১ আগস্ট) বেলা সাড়ে ১১টার পর তাকে আদালতে আনা হয়। রিমান্ড-জেল অনেক তো হলো, অনেকেরই প্রত্যাশা ছিলো এবার জামিন পাবে পরীমণি।

শুরুতে সবাই চুপ থাকলেও এখন অনেকেই পরীমণির মুক্তির দাবিতে সোচ্চার হয়েছেন। গেলো শনিবার (১৪ আগস্ট) বিকেলে ‘বিক্ষুব্ধ নাগরিকজন’ এর ব্যানারে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছিলো। সেখানে বিভিন্ন পেশার মানুষ পরীর মুক্তি দাবি করেছেন। অন্যথায় আজ শনিবার (২১ আগস্ট) শাহবাগে সমাবেশেরও হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন তারা।

সেই ধারাবাহিকতায় এবার ঢাকাই আন্দোলনের প্রাণকেন্দ্র শাহবাগে বড়সড় সমাবেশের ডাক দিয়েছে ‘বিক্ষুব্ধ নাগরিকজন’। সংগঠনটির আহ্বায়ক রবিন আহসান জানান, আজ (২১ আগস্ট) বিকাল ৪টায় এই সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। যেখানে তারা পরীমণির সুবিচারের পক্ষের সব মানুষের অংশগ্রহণ প্রত্যাশা করছেন।

রবিন আহসান বলেন, ‘স্বাধীনতার ৫০ বছর পরে এই প্রথম এভাবে নারী নিপীড়নের সংবাদ ঢালাওভাবে প্রচার হচ্ছে। তাই পরীমণির সুবিচার চাই। আমরা মনে করছি, যা হচ্ছে তাতে তিনি সুবিচার পাচ্ছেন না। শুধু একজন পরীমণির জন্য এই প্রতিবাদ করছি না। বাংলাদেশের পুরো নারী সমাজের জন্য এই সমাবেশের ডাক দিয়েছি।’

এর আগে ‘বিক্ষুব্ধ নাগরিকজন’ এর ব্যানারে বিক্ষোভ সমাবেশের আয়োজনে বক্তারা বলেন, ‘সামান্য মাদক মামলায় একজন মানুষকে জামিন না দিয়ে দুইবার রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। যা অযৌক্তিক। আমরা অতীতে দেখেছি মাদক মামলায় অনেকে জামিনে বেরিয়েছে, তাহলে তাকে কেন বারবার জামিন নামঞ্জুর করে রিমান্ডে নেওয়া হচ্ছে?’

জাতীয় সমাজতান্ত্রিক দলের (জাসদ) তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক কাজী মাহমুদ সুলতানা বলেন, ‘যেভাবে একজন মেয়েকে নিয়ে রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতায় ফেসবুকে বাজে মন্তব্য করা হচ্ছে, তাতে আমরা নারীরা শঙ্কিত না হয়ে পারি না। কোনো সুনির্দিষ্ট মামলা ছাড়াই তাকে রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে।’

যুব ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক খান আসাদুজ্জামান মাসুম বলেন, ‘আজকে একজন নারীকে পণ্যে রূপান্তর করা হচ্ছে, পুলিশ ও র‌্যাবকে দিয়ে তারা আজকে একটা নাটক মঞ্চস্থ করেছে। পরীমণি শুধু একজন নারী নন, তিনি একজন মানুষ। তার ন্যায়বিচার পাওয়ার অধিকার হরণ করা হচ্ছে।’

বিক্ষুব্ধ নাগরিকজনের প্রধান সমন্বয়ক রবিয়া হোসেন বলেন, ‘পরীমণির মতো নারীদের হেয় প্রতিপন্ন করে কিছু কিছু মিডিয়া এদেশকে একটি তালেবানি রাষ্ট্র হিসেবে কায়েম করতে চায়। তাদের সেই শখ পূরণ করতে দেয়া হবে না।’

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button