আইন ও অপরাধ

হিন্দু মেয়েকে মুসলিম করে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

বগুড়ায় মুসলিম করে বিয়ের প্রলোভনে হিন্দু মেয়েকে দু বছর ধরে ধর্ষণের অভিযোগে সদর থানায় মামলা করেছে এক হিন্দু নারী (২২) । অভিযোগ পাওয়ার পর ওই ধর্ষক রাকিবুল ইসলাম রাকিবকে (২২) গ্রেফতার করেছে। বুধবার দুপুরে বগুড়া সদর ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা সেলিম রেজা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

গ্রেফতারকৃত রকিবুল ইসলাম রাকিব (২৫) জেলার শেরপুর উপজেলার বেলঘড়িয়া এলাকার রফিকুল ইসলামের ছেলে।

ভুক্তভোগী ওই হিন্দু নারী বগুড়া জেলার গাবতলী উপজেলার জামিরবাড়িয়া গ্রামের মৃত শশী বিশ্বাসের মেয়ে।

বগুড়া সদর থানায় এজাহার সুত্রে জানা যায়, প্রায় ৫ বছর পূর্বে ভুক্তভোগী ওই নারীর পরিচয় হয় রাকিবের সাথে। এরপর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। প্রেমের সম্পর্কের একপর্যায়ে দুই বছর আগে ভুক্তভোগী নারীসহ রাকিব স্বামী স্ত্রীর পরিচয় দিয়ে বগুড়া শহরের জহুরুল নগর বাসা ভাড়া নিয়ে উঠে। ভাড়া বাসায় তারা দু বছর যাবত স্বামী স্ত্রীর পরিচয়ে বসবাস করছিল। মুসলমান করে হিন্দু ওই নারীকে বিয়ের প্রলোভনে শারীরিক মেলামেশা করতে থাকে। বিয়ের দাবি করায় রাকিব ওই নারীর সাথে টালবাহানা শুরু করে। গতকাল মঙ্গলবার (১৭ আগষ্ট) বিকেলে ওই বাসায় এসে পুনরায় বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ করে। বিয়ের কথা বললে মঙ্গলবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে রাকিব পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। এসময় বাড়িওয়ালা ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় রাকিব আটক করা হয়। থানা পুলিশে দেয়।

বুধবার দুপুরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই জাকির জানান, মঙ্গলবার রাতেই বগুড়া সদর থানা পুলিশ খবর পেয়ে ভুক্তভোগী ওই নারী ও অভিযুক্ত রাকিবকে আটক করে নিয়ে আসা হয়। এদিকে ধর্ষণের শিকার ওই নারী বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চেকআপের জন্য পাঠানো হয়েছে।

বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা জানান, এঘটনায় বগুড়া সদর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা হয়েছে। আসামীকে বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করা হবে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button