বগুড়া জেলাশিবগঞ্জ উপজেলা

বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে বাসচাপায় মা ও মেয়ে নিহত

বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে মোটরসাইকেল থেকে পড়ে বাসচাপায় মা ও মেয়ে নিহত হয়েছেন। রোববার (১ আগস্ট) সন্ধ্যায় বগুড়া-রংপুর মহাসড়কে শিবগঞ্জ উপজেলার কাগইলের রাস্তা নামকস্থানে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন: সোনাতলা উপজেলার কুশার ঘোপ গ্রামের গ্রামীণ ব্যাংক কর্মকর্তা আলতাব আলীর স্ত্রী শিমু বেগম (৪৫) ও তার মেয়ে বগুড়া পুলিশ লাইন্স স্কুল অ্যান্ড কলেজের দশম শ্রেণির ছাত্রী আফরিন জাহান অমি (১৫)।

আলতাব আলী গাইবান্ধা জেলার কোচাশহরে গ্রামীণ ব্যাংকে চাকরি করেন। মেয়ে অমি বগুড়ায় লেখাপড়া করার কারণে তার পরিবার বগুড়া শহরের লতিফপুর মধ্যপাড়ায় বসবাস করতেন।

জানাগেছে, আজ বিকেলে আলতাব আলী তার গ্রামের বাড়ি থেকে স্ত্রী-সন্তানকে শহরের বাসায় পৌঁছানোর জন্য মোটরসাইকেল যোগে রওনা হন। সন্ধ্যা সাড়ে ৬টার তিনি বগুড়া- রংপুর মহাসড়কে শিবগঞ্জ উপজেলার চন্ডিহারা বন্দরের অদূরে কাগইলের রাস্তা নামক স্থানে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মা-মেয়ে মোটরসাইকেল থেকে মহাসড়কে পড়ে যায়।

এসময় পিছন থেকে একটি বাস চাপা দিলে মা-মেয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান। মোটরসাইকেল চালক আলতাব আলী আহত হন।

দুর্ঘটনার পর পরই বাসটি দ্রুতগতিতে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় আলতাব আলী স্ত্রী ও মেয়ের মরদেহ নিয়ে গ্রামের বাড়িতে চলে যান।

বগুড়া ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার বেলজার হোসেন বলেন, খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ঘটনাস্থলে যান। অনেক সময় অপেক্ষা করার পর পুলিশ না পৌঁছালে মরদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button