বগুড়া জেলা

চাকুরীর শেষ দিনটি কখনো ভুলবেন না- কনস্টেবল জগদীশ

বগুড়া ধুনট থানার কনস্টেবল শ্রী জগদীশ চন্দ্র সরকার চাকরি থেকে অবসরে গেলেন। বিদায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠান শেষে তাঁকে ফুলে সজ্জিত গাড়িতে করে বাড়ি পৌঁছে দেওয়া হয়।

পুলিশ কনস্টেবল পদে প্রায় ৩৮ বছর চাকুরী করেছেন জগদীশ। চাকুরী জীবনে কোনো পদোন্নতি পাননি। শনিবার তিনি অবসরে গেলেন। তাঁর চাকুরী জীবনের শেষ দিনটি স্মরণীয় করতে বিশেষ সংবর্ধনার আয়োজন করেছিল ধুনট থানা পুলিশ।

সংবর্ধনা শেষে ফুল আর বেলুন দিয়ে সাজানো থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার (ওসি) সরকারি গাড়িতে বসিয়ে ব্যান্ড পার্টির বাদ্য বাজনা বাজিয়ে বিদায় জানিয়ে তাঁকে পৌঁছে দেওয়া হয় বাড়িতে।

শনিবার দুপুরে থানাচত্বরে শ্রী জগদীশ চন্দ্রকে এ বিদায় সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হয় ক্রেস্ট, ফুল ও পুরস্কারসামগ্রী। বিদায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন ওসি কৃপা সিন্ধু বালা ও পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জাহিদুল হক।

সর্বশেষ ধুনট থানায় কনস্টেবল পদে দায়িত্ব পালন করেন জগদীশ। পরে ফুল দিয়ে সাজানো থানার ওসির সরকারি গাড়িতে করে শেষ কর্মস্থল বাড়িতে পাঠানো হয় তাঁকে। ৩৮ বছরের চাকুরী জীবনে পরিসমাপ্তি ঘটিয়ে আজ থেকে তাঁর অবসরোত্তর ছুটি শুরু হয়।

অফিসার ইনচার্জ কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, ধুনট থানায় এই প্রথম এ ধরনের ব্যতিক্রমী বিদায় অনুষ্ঠান করা হলো। করোনার কারণে সীমিত পরিসরে তারা বিদায় অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

জগদীশ চন্দ্র মুঠোফোনে বলেন, ফুলে সজ্জিত ওসি স্যারের গাড়িটি যখন তাঁর বাড়িতে পৌঁছায়, তখন অনেক লোক ছুটে আসে। পুলিশের সাজানো গাড়ি দেখে সাবই প্রথমে চমকে যায়। এরপর গ্রামবাসী তাঁর সংবর্ধনার বিষয়টি জেনে খুব খুশি হয়। চাকরিজীবন শেষে সম্মানের সঙ্গে বিদায় নেওয়া নিঃসন্দেহে অনেক আনন্দের। এটা তিনি কখনো ভুলবেন না।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button