আইন ও অপরাধবগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়ায় আওয়ামী লীগ নেতা রকিকে কুপিয়ে হত্যা

বগুড়া সদর উপজেলার ফাঁপোর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মমিনুর ইসলাম রকিকে কুপিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বগুড়া জেলা পুলিশের মিডিয়া মুখপাত্র ও সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ।

আজ রাত ৯ টায় ফাঁপড় ইউনিয়ন হাটখোলা বাজার মসজিদের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়রা জানায়া, রাতে নিহত রকি মসজিদে এশার নামাজ পরে বাড়ি ফিরছিলেন।
এসময় মসজিদের পেছনে হাটখোলা এলাকায় পৌঁছালে ১৫ থেকে ২০ জন দুর্বত্তরা রকিকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথা সহ পুরো শরীরে কুপিতে জখম করে।
পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে
আটোরিক্সায় করে তিনমাথা ও পরে সিএনজি তে করে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) নিয়ে আসে।
পরে কর্তব্যরত চিকিৎসারা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহত রকিকে মেডিকেল এ নিয়ে আসা স্থানীয় যুবক আসিফ রহমান জানান, আমরা এলাকায় বসে ছিলাম ওই সময় শুনি রকি ভাইকে অনেক জন মিলায়া কুপিয়েছে। পরে তাকে উদ্ধার করে মেডিকেল এ আনলে ডাক্তার বলেন তিনি মারা গেছেন।

নিহতের খালাতো ভাই শাহাদত হোসেন সনি জানান, এলাকার মাদকাসক্ত ও বখাটে ছেলেরা আমার ভাইকে মেরেছে। আমার ভাই তাদের খারাপ কাজে বাঁধা দিত এ নিয়ে শত্রুতা কারণে তারা আমার ভাইকে খুন করেছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ জানান, আমারা প্রাথমিক ভাবে নিশ্চিত হয়েছি নিহতর সাথে থাকা স্থানীয় কিছু বখাটে যুবক দ্বারা সে খুন হয়েছে। আমরা আইডেন্টিফাই প্রাথমিক ভাবে করে ফেলেছি জড়িতদের ধরতে অভিযান চলছে।

এদিকে রকি নিহতের খবরে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান শফিক, সাধারণ সম্পাদক মাহাফুজুল আলম রাজ, জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল রাজী জুয়েল শজিমেক এ স্বজনদের সাথে দেখা করতে আসেন।
এ সময় আবু সুফিয়ান বলেন, আমরা আমাদের সংগঠনের নেতা হত্যার বিচার চাই।

জেলা পুলিশের একটি সূত্র জানিয়েছে নিহত রকি অস্ত্র সহ একাধিক মামলার আসামি।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button