নন্দীগ্রাম উপজেলা

বগুড়ার নন্দীগ্রামে হঠাৎ বজ্রপাতে বাবা ও ছেলের মৃত্যু

বগুড়ার নন্দীগ্রামে ট্রাক্টর দিয়ে জমি চাষাবাদের সময় হঠাৎ বজ্রপাতে বাবা ও ছেলের মৃত্যু হয়েছে।

মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের বীরপলি গ্রামের শরিষাবাদ মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

বজ্রপাতে মৃতরা হলেন— নন্দীগ্রাম উপজেলার বীরপলি গ্রামের মৃত সাদেক আলীর ছেলে কৃষক আবদুস সামাদ (৪৫) ও তার ছেলে স্থানীয় মুরাদপুর বান্দিরপুকুর দাখিল মাদ্রাসায় সপ্তম শ্রেণির ছাত্র হাবিবুর রহমান হাবিব (১৩)।

নন্দীগ্রাম থানার ওসি আবুল কালাম আজাদ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে আবদুস সামাদ পাওয়ারটিলার দিয়ে গ্রামের শরিষাবাদ মাঠে ধানের জমি চাষ করছিলেন। মাদ্রাসা বন্ধ থাকায় এ সময় হাবিব তার বাবাকে সহযোগিতা করছিল।

মেঘলা আকাশে হঠাৎ বজ্রপাত হলে বাবা ও ছেলে গুরুতর আহত হন। আশপাশে থাকা কৃষকরা বাবা ও ছেলেকে উদ্ধার করে পার্শ্ববর্তী শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেন। সেখানে চিকিৎসক তাদের মৃত ঘোষণা করেন। সামাদ ও ছেলে হাবিবের মৃতদেহ বাড়িতে নেওয়া হয়।

উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নূর মোহাম্মদ জানান, বাবা-ছেলের মৃত্যুতে শুধু পরিবারে নয়; পুরো গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button