আন্তর্জাতিক খবর

নিউ ইয়র্কে বন্যা

যুক্তরাষ্ট্রের দুই প্রান্তে দুইরকমের আবহাওয়া চরম রূপ নিয়েছে। দেশটির পশ্চিমাঞ্চলে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে তাপপ্রবাহ বইছে। প্রচণ্ড গরম থেকে শুরু হয়েছে দাবানল। পুড়ে গেছে লাখ লাখ একর এলাকা। অন্যদিকে, দেশটির পূর্বাঞ্চলে ব্যাপক ঝড়বৃষ্টির প্রভাবে দেখা দিয়েছে বন্যা।

যুক্তরাষ্ট্রের পূর্ব ও পশ্চিম, দুই প্রান্তের আবহাওয়া বিপরীত ও চরম রূপ নিয়েছে। দেশটির পশ্চিমাঞ্চলে এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে তাপপ্রবাহ বইছে। তাপপ্রবাহে নিহতের সংখ্যা ২ষ ছাড়িয়েছে। এর মধ্যে ওরেগনে প্রাণ হারিয়েছেন অন্তত ১শ ১৬ জন। আর ওয়াশিংটন অঙ্গরাজ্যের সিয়াটলে অন্তত ১০৮ জন মারা গেছেন।

তাপপ্রবাহের কারণে ক্যালিফোর্নিয়ায় এখনো বেশ কয়েকটি দাবানল সক্রিয় রয়েছে। চলতি সপ্তাহের শেষে আরেক দফায় তাপপ্রবাহ বইতে পারে বলে পূর্বাভাস দিয়েছে দেশটির আবহাওয়া বিভাগ।  দুর্যোগ মোকাবিলায় প্রস্তুতি নিতে কাজ শুরু করেছে বেশ কয়েকটি অঙ্গরাজ্য। নাতিশীতোষ্ণ জলবায়ুর অঞ্চলে তাপপ্রবাহে এত মানুষের মৃত্যুর ঘটনা জলবায়ু পরিবর্তনের ভয়াবহতার ইঙ্গিত দেয় বলেই মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।  এই প্রবণতা ভবিষ্যতে ঘনঘন দেখা যাবে বলেও আশঙ্কা তাদের।

অন্যদিকে, যুক্তরাষ্ট্রের পূর্বাঞ্চলে ভিন্ন চিত্র। নর্থ ক্যারোলাইনা ও ভার্জিনিয়া অঙ্গরাজ্যে ঘূর্ণিঝড় এলসা আঘাত হানে। এলসা’র প্রভাবে ব্যাপক ঝড়বৃষ্টি হয়েছে পূর্ব উপকূলে ।  বন্যার পানিতে তলিয়ে গেছে নিউ ইয়র্ক অঙ্গরাজ্য। এছাড়া ব্যাপক শিলাবৃষ্টি হয়েছে পূর্বাঞ্চলীয় আরেক অঙ্গরাজ্য নিউজার্সিতে। নিউ ইয়র্ক সিটির ব্রঙ্কস ও ম্যানহ্যাটানসহ কয়েকটি এলাকায় বন্যার পানিতে ডুবে গেছে সাবওয়ে স্টেশন। পূর্ব উপকূলীয় অঞ্চলে ৫ কোটি মানুষকে বন্যা সতর্কতা দেয়া হয়েছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button