আন্তর্জাতিক খবর

যুক্তরাজ্যে শেষ হচ্ছে লকডাউন

আগামী ১৯ জুলাই থেকে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে আরোপিত চলমান লকডাউন শেষ হতে যাচ্ছে যুক্তরাজ্যে। প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন গতকাল সোমবার এ নিয়ে তাঁর পরিকল্পনা তুলে ধরেছেন। যুক্তরাজ্যবাসীর ওপর থেকে মাস্ক পরাসহ ১৬ মাস ধরে চলে আসা সামাজিক দূরত্বের বাধ্যবাধকতা তুলে নেওয়ার কথা জানিয়ে ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানগুলোকে পুনরায় চালুর বিষয়ে প্রস্তুতি নিতে বলেছেন তিনি। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি ও ডেইলি মেইলের খবরে এমনটি জানানো হয়েছে।

তবে করোনার ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের সংক্রমণ বেড়ে এই স্বাভাবিক সময়ে ফিরে যাওয়াটা অর্থাৎ মুক্তজীবন মাত্র কয়েক সপ্তাহ টিকতে পারে বলে সতর্ক করে দিয়েছেন দেশটির বিজ্ঞানীরা। সায়েন্টিফিক অ্যাডভাইজরি গ্রুপ ফর ইমার্জেন্সিজ (এসএজিই) বলছে, হাসপাতালে রোগী ভর্তি এবং মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও যেকোনো সময় সংক্রমণ বেড়ে যেতে পারে।

উদ্বেগসৃষ্টিকারী ভ্যারিয়েন্ট এসে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতায় আঘাত হানলে আবারও এবং এর চেয়ে বেশি সময়ের জন্য লকডাউন আরোপ করা লাগতে পারে বলে সতর্ক করেছে এসএজিই। ভাইরাস মোকাবিলায় দীর্ঘমেয়াদী নিয়ন্ত্রণ নীতির প্রতি গুরুত্বারোপ করে সংস্থাটি।

প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনও বলেছেন, ১৯ জুলাইয়ের পর বিধিনিষেধ তুলে নেওয়ার খুশিতে বেশি বেশি জনসমাগম করা সমীচীন হবে না। করোনাভাইরাস একেবারে নিঃশেষ হওয়ার অনেক দেরি আছে বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

বরিস জনসন বলেন, রাতারাতি পরিস্থিতি পাল্টে দৈনিক সংক্রমণ আবার ৫০ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে।

আগামী ১২ জুলাই লকডাউন তুলে নেওয়ার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হবে বলে জানান ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। গতকাল সোমবার ডাউনিং স্ট্রিটে সংবাদ সম্মেলনে করোনার বিধিনিষেধ নিয়ে কথা বলেন তিনি। এ সময় সেখানে উপস্থিত ছিলেন যুক্তরাজ্যের প্রধান বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা প্যাট্রিক ভ্যালেন্স এবং ইংল্যান্ডের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ক্রিস হুইট্টি।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button