আইন ও অপরাধ

বগুড়ায় গাবতলীতে ট্রাকভর্তি বিদেশি মদের চালান আটক

বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সুখানপুকুরে একটি ট্রাকে মাদক তোলার সময় জনতা বিপুল পরিমাণ মাদক দ্রব্য আটক করেছে। এ সময় হাতে নাতে ট্রাক ড্রাইভার ও হেলপারকেও আটক করে তারা। আটক মাদকগুলো বিভিন্ন ব্রান্ডের বিদেশি মদ এবং এগুলো ছিল ৩১টি কার্টুনে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬টার দিকে বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সুখানপুকুর বন্দরে বাংলাদেশ জুট কর্পোরেশন, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের একটি পরিত্যক্ত গুদাম থেকে নাবিল নামের এক ব্যক্তি ভাড়া করা ট্রাক এনে এসব বিদেশি মদের কার্টনগুলো ট্রাকে তুলছিল। এ সময় স্থানীয় জনতা বিষয়টি টের পেলে মাদক বোঝাই ট্রাকটি (ঢাকা মেট্রো-ন-১৭ ৬৬৫১) আটকে দেয়। এ সময় তারা ট্রাকের ড্রাইভার গাবতলী উপজেলার উনচুরখী গ্রামের আব্দুল নূর মন্ডলের ছেলে জাহাঙ্গীর আলম (৩৮) ও ট্রাকের হেলপার একই উপজেলা চকডঙর মৃত বাবুল খাঁর ছেলে সোহেল মিয়া (২২) কেও আটক রাখে। পরে থানা পুলিশ এসে মাদকদ্রব্য উদ্ধার করে। উদ্ধারকৃত মালামালের মধ্যে রয়েছে, ২০ কার্টন বেলজিয়াম বিয়ার, ডেনমার্কের তৈরি রয়েল ডাস ৬ কার্টুন, ১০০ পিপারস ১ কার্টুন, হুইস্কি ৪ কার্টন।

এলাকাবাসী জানান, বগুড়ার গাবতলী উপজেলার সুখানপুকুর বন্দরে হাত বাড়ালেই পাওয়া যায় এ ধরনের মাদক দ্রব্য। দীর্ঘদিন যাবত সুখানপুকুর বন্দরে মাদকের জমজমাট আসর চলে আসছে বলেও জানা গেছে।

স্থানীয় লোকজন জানান, নাবিল নামের এক যুবক দীর্ঘদিন যাবত পাটের ওই গুদামে নাইট গার্ডের দায়িত্ব পালন করে আসছে। সেখানে ওই গুদামের পাশে সে তার পরিবার পরিজন নিয়ে বসবাস করে। স্থানীয় লোকজন আরও জানান, মাঝে মধ্যেই ওই পাটের গুদামে দিনে এবং গভীর রাতে এ ধরনের ট্রাক, মাইক্রো ও সিএনজি আসা-যাওয়া করতো। গতকাল ট্রাকটি আটক হওয়ার সময় নাবিল কৌশলে পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে গাবতলী থানার ওসি জিয়া লতিফুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, আটককৃত মাদকদ্রব্য পরিবহনের জন্য একটি ট্রাক, ট্রাক চালক, হেলপারকে আটক করা হয়েছে। এছাড়া স্থানীয় জনতার সামনে মাদকদ্রব্যগুলো গণনা করা হয়েছে। আটককৃতরা জানায়, তাদেরকে বগুড়া শহরের জলেশ্বরীতলায় নিয়ে যাওয়ার জন্য চেলোপাড়া থেকে ওই ট্রাক ভাড়া করেছিল। এ ঘটনায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button