বগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়া সদর উপজেলায় ৭ দিনের বিধি নিষেধ আরোপ

করোনার সংক্রমণ মোকাবিলায় জেলায় লকডাউনের প্রেক্ষিতে বগুড়ায় জনসাধারণের স্বাস্থ্যসুরক্ষা নিশ্চিতের লক্ষে নতুন বিধি-নিষেধ জারি করেছে বগুড়া জেলা প্রশাসন। শনিবার বগুড়ার জেলা প্রশাসক মোঃ জিয়াউল হক স্বাক্ষরিত এক গণবিজ্ঞপ্তিতে নতুন বিধি নিষেধের ব্যাপারে জানানো হয়।

বিজ্ঞাপন

আজ শনিবার (১৯ জুন) রাত ১২ টা থেকে এ আদেশ কার্যকর হবে বলে গণবিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়েছে। যা বলবৎ থাকবে আগামী ২৬ জুন, ২০২১ তারিখ রাত ১২:০০ পর্যন্ত। বগুড়া পৌরসভা সহ বগুড়া সদর উপজেলায় নিমোক্তভাবে কঠোর বিধিনিষেধ আরোপ করেছেন জেলা প্রশাসন।

গণবিজ্ঞপ্তিতে যে সকল বিধি- নিষেধ আরোপ করা হয়েছে-

ক) সকল ধরণের ব্যবসা প্রতিষ্ঠান শপিংমল, মার্কেট, দোকান বন্ধ থাকবে। তবে ঔষধ, কাঁচাবাজার, নিত্যপ্রয়োজনী দ্রব্যাদি, চিকিৎসা সেবা মৃতদেহ দাফন সংকারের সঙ্গে জড়িত প্রতিষ্ঠান এর আওতা বহির্ভূত থাকবে।

খ) খাবারের দোকান ও হোটেল-রেস্তোরাঁসমূহ সকাল ০৯:০০ ঘটিকা হতে রাত ১০:০০ ঘটিকা পর্যন্ত খাদ্য বিষয় সরবরাহ (Takenway / Online) করতে পারবে।

গ) বিধি নিষেধ চলাকালীন বাসসহ কোন প্রকার যানবহন বগুড়া শহরে প্রবেশ করতে এবং বগুড়া শহর হতে বাইরে যেতে পারবে না। দূরপাল্লার বাস শুধু হাইওয়ে ব্যবহার করবে এবং সর্বাত্নক কঠোর বিধি নিষেধ আরোপিত এলাকায় সকল প্রকার যানবহন চলাচল বন্ধ থাকবে।। তবে জরুরী সেবাদানকারী পরিবহন, রোগী পরিবহণকারী অ্যাম্বুলেন্স, স্বাস্থ্যসেবার সাথে সম্পর্কিত পরিবহণ ও ব্যক্তিবর্গ এবং কৃষিপণ্য/ খাদ্যসামগ্রী পরিবহণ নিষেধাজ্ঞার আওতা বহির্ভূত থাকবে।

ঘ) জনসমাবেশ হয় এ ধরণের সামাজিক (বিবাহোত্তর অনুষ্ঠান, জন্মদিন, পিকনিক পার্টি ইত্যাদি), রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠানসহ সকল ধরণের গণজমায়েত বন্ধ থাকবে।

ঙ) বগুড়া শহরের সকল সাপ্তাহিক হাট বন্ধ থাকবে।

(চ) সকল পর্যটনস্থল, নিসোর্ট, কমিউনিটি সেন্টার ও বিনোদন কেন্দ্র বন্ধ থাকবে।

(ছ) সকল ধরনের চা এর দোকান বন্ধ থাকবে এবং ফুটপাতে কোন প্রকার দোকানে বসা যাবেনা।

(জ) শিল্প-কারখানাসমূহ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণপূর্বক নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় চালু থাকবে।

(ঝ) সরকারের রাজস্ব আদায়ের সাথে সম্পৃক্ত সকল দপ্তর / সংস্থাসমূহ জরুরি পরিসেবার আওতাভুক্ত হবে।

(ঞ) সকল ধরণের সরবারহ ব্যবস্থাপনায় (Supply chain) সচল থাকবে।

(ট) স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে জুম্মার নামাজসহ প্রতি ওয়াজ মেনে মুসল্লি অংশগ্রহণ করতে পারবে। স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়েও সামাজিক দূরত্ব মেনে উপাসনা করা যাবে।

(ঠ) উপযুক্ত বিধি নিষেধ অমান্য করলে সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল আইন ২০১৮ প্রচলিত অন্যান্য আইন অনুযায়ী যথাযথ ব্যবস্থা করা করা হবে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন