বিনোদন

সংসদে পরীমণি ইস্যু নিয়ে তোলপাড়

পরীমনি ইস্যুটি জাতীয় সংসদেও স্থান পেয়েছে। বৃহস্পতিবার সকালে জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্যরা এই আলোচনা তোলেন। পরীমনির মামলায় গ্রেপ্তার নাসির ইউ মাহমুদকে যেন রিমান্ডে নির্যাতন করা না হয় সেই আহ্বান জানান এক সংসদ সদস্য। আরেক সংসদ সদস্য পরীমনির বিরুদ্ধে ক্লাবে ভাংচুরের অভিযোগের রেফারেন্স টেনে সুষ্ঠু তদন্ত দাবি করেন। পাশাপাশি নাসির ইউ মাহমুদের মুক্তিও দাবি করেন।

বিজ্ঞাপন

জানা গেছে, পরীমনির ধর্ষণ-হত্যাচেষ্টা মামলায় অভিযুক্ত নাসির ইউ মাহমুদকে যেন কোনোভাবেই টর্চার না করা হয় জাতীয় সংসদে এ আহ্বান জানান জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য মসিউর রহমান রাঙ্গা। আইন অনুসারে এ ঘটনার বিচারের দাবি জানান তিনি। জাতীয় পার্টির আরেক সংসদ সদস্য গোলাম কিবরিয়া টিপু বলেন, তার দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য নাসির ইউ মাহমুদকে দ্রুত যেন মুক্তি দেয়া হয়। আরও বলেন, এ আগেও পরীমনি গুলশানের একটি ক্লাবে ভাংচুর করেছে। এ ঘটনার সঠিক তদন্তের দাবি জানান।

এদিকে গভীর রাতে গুলশান অল কমিউনিটি ক্লাবে গিয়ে মদ চেয়ে পরীমনির ভাঙচুর নিয়ে সুনির্দিষ্ট অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানিয়েছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। বৃহস্পতিবার দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

তিনি বলেন, অল কমিউনিটি ক্লাবের ঘটনাটি গুলশান টিমের আওতায়। বিষয়টি নিয়ে ডিবি কাজ করছে জানিয়ে হাফিজ আক্তার বলেন, এ বিষয়ে যেকোনো ধরনের অভিযোগ পেলে অবশ্যই ব্যবস্থা নেয়া হবে।

গেলো ৭ জুন রাতে পরীমনি রাজধানীর গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবের বারে ভাঙচুর চালান বলে অভিযোগ করেছে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। রাত সোয়া ১টার দিকে গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে অতিথি হিসেবে আসেন। নিয়ম না মানা এবং ক্লাবের সময় শেষ হয়ে যাওয়ায় পরীমনি ও তার সঙ্গে থাকা দুজনকে চলে যেতে বলে ক্লাব কর্তৃপক্ষ। কিন্তু তা না শুনে ক্লাব বারে প্রায় ১৫টি গ্লাস, ৯টি অ্যাশ ট্রে ও বেশ কিছু হাফ প্লেট ভেঙেছেন।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button