বিনোদন

নাসির উদ্দিন আমাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করেছে: পরীমনি

ঢাকাই চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা পরীমণিকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন পরীমণি নিজেই। রোববার (১৩) জুন রাত ৮টা দিকে তিনি তার ভেরিফাইট ফেসবুকে পেইজে দেওয়া এক স্ট্যাটাসে এ লোমহর্ষক ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

এ ঘটনায় দোষীদের বিচারে নায়িকা পরীমণি প্রধানমন্ত্রীর কাছে বিচার চেয়েছেন।

আমি আত্মহত্যা করার মতো মেয়ে না, আমি যদি মরে যাই তাহলে বুঝবেন আমাকে মেরে ফেলা হয়েছে। আমি আত্মহত্যা করবো না, আমি আমার বিচার নিয়েই আত্মহত্যা করবো বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়িকা পরীমনি কান্না কান্না কণ্ঠে সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলে জানান, নাসির উদ্দিন আহম্মেদ আমাকে ধর্ষণ ও হত্যার চেষ্টা করেছেন। আমার গায়ে যখন হাত তোলা হয় তখন বারবার বলেছিল- আমাকে তিন টুকরো করে ভাসিয়ে দেবে।

রোববার (১৩ জুন) রাত সাড়ে ১১টার দিকে পরীমনি নিজের বাসায় সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

পরীমনি বলেন, আমার সঙ্গে অন্যায় করা হয়েছে, আমি অন্যায়ের বিচার চাই। আমাকে যদি কেউ মেরে ফেলে তাহলে মিডিয়া যেন তার বিচার করে।

তিনি বলেন, আমার সঙ্গে যে অন্যায় করা হয়েছে এর বিচার চাই। এই ঘটনায় আপনি কি মামলা করবেন সাংবাদিকের এমন প্রশ্নে পরীমনি বলেন, আমার মামলা কে নেবে? আমি সঠিক বিচার চাই। আপনারা নিউজ করে চলে যাবেন না, আমি ভয় পাচ্ছি, আমার নিরাপত্তা দিতে কে? আমাকে নিরাপত্তা দেন।

পরীমনি বলেন, আমি এখন খুব বিশ্বাস করি, একজন সাধারণ মেয়ে যদি ভিকটিম হয়, আত্মহত্যা ছাড়া তার কাছে আর কোনো পথ খোলা থাকে না। সাধারণ মেয়ে হিসেবে গত চার দিন ধরে অনেকের দাঁড়ে দাঁড়ে ঘুরেছি কেউ সহযোগিতা করেনি। একজন পরীমনি হিসেবে ফেসবুকে যখন স্ট্যাটাসটি দিলাম তখনই মিডিয়া এসেছে।

সাধারণ মেয়েরা ভিকটিম হলে প্রথমে থানায় যায়, কিন্তু থানা ভিকটিমের কথা ঠিকভাবে শুনতে চায় না। যেখানেই সহযোগিতার জন্য গিয়েছি, সেখানেই জানানো হয়েছে- মিডিয়াকে ঘটনাটি জানানোর দরকার নেই। গত চার দিন ধরে এভাবে চলার পরও বিচার পাননি বলে জানান পরীমনি।

বগুড়া লাইভের পাঠকদের জন্য পরীমনির দেয়া স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button