আইন ও অপরাধ

বগুড়ায় সাড়ে ৪ হাজার এ্যাম্পুলসহ গ্রেফতার ৩

বগুড়ায় সদর থানা পুলিশের মাদকবিরোধী অভিযানে সোমবার ভোর রাতে রংপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী একটি যাত্রীবাহী বাসে অভিযান চালিয়ে সাড়ে ৪ হাজার এ্যাম্পুল (নেশাজাতীয় ইঞ্জেকশন) সহ ৩ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সোমবার রাতে মুঠোফোনে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেন সদর থানার ওসি সেলিম রেজা।

বিজ্ঞাপন

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, পীরগঞ্জ চৈত্রকোল এলাকার মৃত: মনসুর আলীর ছেলে নজরুল ইসলাম (৫০), রংপুর মিঠাপুকুর উপজেলার রামেশ্বরপাড়া এলাকার মৃত: আ: রহমানের ছেলে মো: মোস্তফা (৩০) এবং একই উপজেলার বুজরুক নুরপুর এলাকার রঞ্জু মিয়ার ছেলে ছালেক মিয়া (২৫)।

এজাহার ও সদর থানাসূত্রে জানা যায়, সোমবার রাতে রংপুর থেকে ঢাকাগামী একটি বাসে যাত্রীসেজে কিছু মাদক ব্যবসায়ী কৌশলে মাদক পরিবহন করছে এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বগুড়া সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ফয়সাল মাহমুদ ও সদর ওসি সেলিম রেজার দিক-নির্দেশনায় এসআই তয়ন কুমার মন্ডল এর নেতৃত্বে এস.আই মীর রায়হান সিদ্দিকী, এএসআই মাসুদ রানা, এএসআই ডন কংকন বর্মণসহ সঙ্গীয় ফোর্স শহরের কলোনী এলাকায় অবস্থান নেন এবং রাত আনুমানিক ৩ টায় সেই বাসটিকে থামিয়ে বাসের যাত্রীদের মাঝে সন্দেহজনক ৩ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে আটককৃতদের তথ্য অনুযায়ী সাক্ষীগণের উপস্থিতিতে বাসের পিছনের বক্সে থাকা আলাদা আলাদা বস্তায় লতাপাতা দিয়ে কৌশলে মোড়ানো অবস্থায় নেশাজাতীয় তরলে ভর্তি সহ সাড়ে ৪ হাজার এ্যাম্পুল উদ্ধার করে পুলিশ সদস্যরা যা তারা ঢাকায় বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে নিয়ে যাচ্ছিল বলে ধারণা করা হয়।

এ প্রসঙ্গে বগুড়া সদর থানার অফিসার ইনচার্জ সেলিম রেজা জানান, গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের পূর্বক আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। মাদকের বিরুদ্ধে সদর থানার সকল পুলিশ সদস্যরা সর্বদা জিরো টলারেন্স ভূমিকা পালন করে। জেলা পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে মাদকবিরোধী এই অভিযান চলমান থাকবে বলেও জানান তিনি।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button