আন্তর্জাতিক খবর

কৃত্রিম উপায়ে বৃষ্টি নামানোর পদ্ধতি উদ্ভাবন!

কৃত্রিম উপায়ে বৃষ্টি নামানোর পদ্ধতি উদ্ভাবন করেছে সংযুক্ত আরব আমিরাত। এই কাজে ব্যবহার হবে বিশেষ ড্রোন। এই ড্রোন উড়ে যাবে মেঘগুচ্ছের কাছে। এরপর সেখানে বৈদ্যুতিক শক বা তাপ দেয়া হবে। যাতে মেঘ গলে ফোঁটায় ফোঁটায় বৃষ্টির সৃষ্টি হবে।

বিজ্ঞাপন

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে বছরে সাধারণত ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়। সার্বিক বিচারে দেশটিতে প্রয়োজনের তুলনায় এটি খুবই কম। এজন্য তারা ২০১৭ সালে ১৫ মিলিয়ন ডলার খরচ করে কয়েকটি বৃষ্টিবর্ধন প্রকল্পের কাজ হাতে নেয়।

এর মধ্যে একটি প্রকল্পের নেতৃত্ব দিচ্ছে যুক্তরাজ্যের রিডিং ইউনিভার্সিটির একদল বিজ্ঞানী। প্রকল্পটির লক্ষ্য হচ্ছে, মেঘের ফোঁটাগুলোতে বৈদ্যুতিক তাপের ভারসাম্য নিয়ন্ত্রণ করা।

বিজ্ঞানীরা এরই মধ্যে উৎক্ষেপণযোগ্য চারটি ড্রোন তৈরি করেছে। দুই মিটারের ডানা থাকছে যার। ক্যাটাপুল্ট নামের এক ধরনের ব্যালিস্টিক ডিভাইস থেকে উৎক্ষেপণ করা হবে ড্রোনগুলোকে। অটোপাইলট সিস্টেস সংবলিত এই ড্রোনগুলো আকাশে উড়তে পারবে ৪০ মিনিট ধরে।

ড্রোনে থাকা সেন্সর তাপমাত্রা ও আর্দ্রতা পরিমাপ করতে পারবে। এরই মধ্যে পরীক্ষা চালানো হয়েছে যুক্তরাজ্যে ও ফিনল্যান্ডে। এ সংক্রান্ত গবেষণাটি প্রকাশিত হয়েছে জার্নাল অব অ্যাটমোসফেরিক অ্যান্ড ওশান টেকনোলজিতে।

আমিরাতের বৃষ্টি বর্ধন বিজ্ঞান গবেষণা কর্মসূচির পরিচালক জানান, বৈদ্যুতিক চার্জ নির্গমন যন্ত্র ও কাস্টমাইজড সেন্সর সজ্জিত ড্রোন তুলনামূলক কম উচ্চতায় মেঘের কাছে উড়ে যাবে এবং উত্তাপ সৃষ্টির মাধ্যমে গলিয়ে ফেলবে ও বৃষ্টিপাত ঘটাবে।

সব কিছু ঠিক থাকলে শিগগিরই দুবাইয়ে পরীক্ষা চালানো হবে এসব ড্রোনের।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button