সারিয়াকান্দি উপজেলা

সারিয়াকান্দিতে বয়স্ক ভাতার টাকা তুলতে এসে জনতার হাতে ইউপি সদস্য আটক

বগুড়া জেলার সারিয়াকান্দিতে ব্যাংকে বয়স্ক ভাতার টাকা তুলতে এসে জনতার হাতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা ও কর্ণিবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) সদস্য মিজানুর রহমান মিজান (৪০) আটক হয়েছেন।

বিজ্ঞাপন

রবিবার বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনার সময় ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান তাকে উদ্ধার করেন।

সারিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল মিয়া জানান, এ ব্যাপারে তদন্ত করতে সমাজসেবা কর্মকর্তাকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অভিযোগের সত্যতা পেলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে আবেদন করা হবে।

তিনি আরও বলেন, এর আগেও ওই ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে অন্যের বয়স্ক ভাতার কার্ডে নিজের ফোন নম্বর বসানো, খাস জমিতে ঘর তোলার চেষ্টাসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

অভিযোগ প্রসঙ্গে ইউপি সদস্য মিজান জানান, তিনি কার্ডগুলো প্রতিস্থাপন করতে ব্যাংকে গিয়েছিলেন।

জানা গেছে, উপজেলার উরাডাঙ্গা গ্রামের মৃত হাসেন আলী মেম্বরের ছেলে মিজানুর রহমান মিজান সারিয়াকান্দি উপজেলার কর্ণিবাড়ি ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও আওয়ামী লীগ সভাপতি। তিনি রবিবার বেলা ১১টার দিকে কর্নিবাড়ি, ভেলাবাড়ি ও কুতুবপুর ইউনিয়নের বয়স্ক এবং বিধবা ভাতার ২১টি কার্ডের টাকা তুলতে জোড়গাছায় কৃষি ব্যাংকের শাখায় যান। তার সঙ্গে ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের ছাইহাটা গ্রামের আবেদ আলীর স্ত্রী সাজেদা বেগম ছিলেন। কর্ণিবাড়ি ইউপি সদস্য মিজান ভেলাবাড়ি ইউনিয়নে ভাতার টাকা উত্তোলন করতে আসায় জনগণের মাঝে সন্দেহ হয়। এক পর্যায়ে জনগণ ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে আটক করেন। খবর পেয়ে ভেলাবাড়ি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রুবেল উদ্দিন তাকে উদ্ধার করে পরিষদে নিয়ে আসেন। এছাড়া বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রাসেল মিয়াকে অবহিত করেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাৎক্ষণিকভাবে বিষয়টি তদন্ত করে রিপোর্ট দিতে উপজেলা সমাজসেবা কর্মকর্তা নাইম হোসেনকে নির্দেশ দেন। বিকালে সমাজসেবা কর্মকর্তা জানান, ইউএনওর নির্দেশে তদন্ত করতে ভেলাবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদে এসেছেন। তদন্ত শেষে হলে রিপোর্ট দাখিল করা হবে। জব্দ ভাতার বইগুলো সুবিধাভোগীদের মাঝে হস্তান্তর করা হচ্ছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button