আইন ও অপরাধ

বিয়ের প্রলোভনে চার বছর ধর্ষণ অতঃপর গ্রেফতার

বগুড়ায় বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক নারীকে চার বছর ধরে ধর্ষণ ও ওই নারীর কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মেহেদী হাসান ওরফে কাফী (৪৩) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)।

বিজ্ঞাপন

শনিবার (২২ মে) পিবিআই বগুড়ার পুলিশ সুপার আকরামুল হোসেন এতথ্য জানিয়েছেন। ( সূত্রঃ বার্তা ২৪)

গ্রেফতারকৃত মেহেদী হাসান কাফী বগুড়া সদর উপজেলার মালতিনগর হাইস্কুল মোড় এলাকার আব্দুল করিম শেখের ছেলে।

জানাগেছে, বগুড়া শহরের তিনমাথা রেলগেট এলাকায় বসবাসকারী প্যারামেডিকেল চিকিৎসক এক নারীর সাথে ২০১৭ সালে পরিচয় হয় কাফীর সাথে। তাদের মধ্যে পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে ওঠে এবং বগুড়া ছাড়াও রাজশাহী, কক্সবাজার, গাজীপুরের বিভিন্ন হোটেলে তারা স্বামী-স্ত্রী পরিচয়ে মেলামেশা করে। এক পর্যায়ে কাফী তার ছেলের চিকিৎসার জন্য ওই নারীর কাছ থেকে সাড়ে ৭ লাখ টাকা হাতিয়ে নেয়। সম্প্রতি কাফী ওই নারীকে বিয়ে করতে অস্বীকার করে। পরে ওই নারী আদালতে কাফীর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে ধর্ষণ ও টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগে মামলা করেন।

আদালত বাদীর অভিযোগটি সদর থানায় নথিভুক্ত করে পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দেন। আদালতের নির্দেশনা মোতাবেক পিবিআই এর একটি টিম শনিবার কাফীকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করে।(সুত্রঃ বার্তা ২৪)

এর আগে এ বিষয়ে গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের একটি Bogura-বগুড়া নামক গ্রুপে মেয়েটি প্রথমদিকে তার নিজস্ব অথবা ফেইক আইডি থেকে অভিযোগের আওয়াজ তোলেন। বিষয়টি তখন অনেকেরই নজরে আসে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button