গাবতলী উপজেলা

পাওনা টাকা চাওয়ায় ছুরিকাঘাতে হত্যা

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় বন্ধুর কাছে পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে ছুরিকাঘাতে হত্যার শিকার হয়েছেন আব্দুস সালাম (১৯) নামে এক যুবক৷ 

শুক্রবার (২১ মে) রাত ১০টার দিকে উপজেলার বালিয়াদীঘি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত আব্দুস সালাম গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি গ্রামের সাজু প্রামাণিকের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আব্দুস সালাম ও একই গ্রামের জীবন নামে অপর যুবক এক সঙ্গে রাজমিস্ত্রির সহকারী হিসেবে কাজ করেন। এ সুবাদে তাদের মধ্যে বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে।কিছুদিন আগে আব্দুস সালামের কাছ থেকে ২০০ টাকা ধার নেন জীবন। টাকা নেওয়ার পর থেকে তিনি আব্দুস সালামের সঙ্গে যোগাযোগ বন্ধ করে দেন।ফোন করলেও তা তিনি ধরতেন না। শুক্রবার রাতে আব্দুস সালাম তার বাড়ির পাশে জীবনকে দেখতে পেয়ে পাওনা টাকা ফেরত চান।তখনই টাকা না দিলে তিনি জীবনের মোবাইল ফোন কেড়ে নেবেন বলে হুমকি দেন। জীবন তখন টাকা দেওয়ার কথা বলে আব্দুস সালামকে সঙ্গে নিয়ে কিছু দূরে গিয়ে তার পেটে ছুরিকাঘাত করেন। এ সময় আব্দুস সালামের চিৎকারে এলাকার লোকজন গিয়ে তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে। এ অবস্থায় আব্দুস সালামকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জিয়া লতিফুল ইসলাম জানান, ছুরিকাহত আব্দুস সালামকে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি তার পরিবারের সদস্যদের কাছে বিস্তারিত ঘটনা বলেছেন। বিষয়টি জানার পর অভিযুক্ত জীবনকে গ্রেফতার করতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button