শেরপুর উপজেলা

বগুড়ায় ফেসবুকে নারী চিকিৎসককে উত্যক্ত, যুবক গ্রেপ্তার

সামাজিক যােগাযােগ মাধ্যম ফেসবুকে বগুড়ার শেরপুরে নারী চিকিৎসককে উত্যক্ত করার ঘটনায় রাশেদ আহম্মেদ (২৪) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার (১০এপ্রিল) দুপুরের পর উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নের মির্জাপুর গ্রামস্থ নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। সে ওই গ্রামের আবু হানিফের ছেলে। এরআগে শুক্রবার (০৯এপ্রিল) দিনগত রাতে শেরপুর শহরের হাসপাতাল রােডস্থ মর্ডান ক্লিনিকের মালিক ও চিকিৎসক ডা. রাফসানা জাহান রিমি বাদি হয়ে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে একটি মামলা দায়ের করেন।

বিজ্ঞাপন

মামলা সূত্রে জানা যায়, বিগত ৭মার্চ শহরের হাসপাতাল রােড। এলাকার রফিকুল ইসলামের মেয়ে ওই নারী চিকিৎসকের ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডির ম্যাসেঞ্জারে প্রথমে ম্যাসেজ পাঠায় বখাটে যুবক রাশেদ। এরপর থেকে প্রতিনিয়তই অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ ম্যাসেজ পাঠাতে থাকেন। এহেন কর্মকাণ্ড থেকে বিরত থাকতে একাধিকবার তাকে নিষেধ করা হয়। কিন্তু কে শােনে কার কথা। বরং আরও বেপরােয়া হয়ে উত্যক্তের মাত্রা বাড়িয়ে দেয়। এমনকি বিগত তিন-চারদিন থেকে ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারে বিভিন্ন নগ্ন ও অশ্লীল ছবি পাঠানাে শুরু করেছে। একপর্যায়ে অতিষ্ঠ হয়ে থানা পুলিশের নিকট দ্বাড়হ্থ হয়েছেন বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে শেরপুর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) এসএম আবুল কালাম আজাদ ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, উক্ত ঘটনায় থানায় ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা নেওয়া হয়েছে। সেইসঙ্গে পুলিশ অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত রাশেদ নামের ওই যুবককেও গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশি অভিযানে গ্রেপ্তার হওয়া এই যুবককে বগুড়ায় আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানাের প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান এই পুলিশ কর্মকর্তা।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button