আন্তর্জাতিক খবর

ভারতে করোনা রোগীদের সেবা দিচ্ছে রোবট

করোনা মহামারিতে নাকাল দক্ষিণ এশিয়ার দেশ ভারত। দেশটিতে বর্তমানে বিশ্বের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা আক্রান্ত রোগী আছে। এমন অবস্থায় বেশ কয়েকটি হাসপাতাল রোবট ব্যবহার শুরু করেছে।

এসব রোবট মূলত হাসপাতালের ডাক্তার ও স্বাস্থ্যকর্মীদের সহায়তার পাশাপাশি রোগীদের পরিবারের সদস্য, প্রিয়জনদের সাথে যুক্ত করতে কাজ করছে।

প্রযুক্তি সেবার জন্য বিখ্যাত ব্যাঙ্গালোরভিত্তিক ইনভেন্টো রোবটিক্স কোম্পানি তিনটি রোবট ডিজাইন করেছেন। যেগুলো হাসপাতালের ফ্লোর জীবাণুমুক্ত করা, রোগীদের প্রশ্নের জবাব দেয়া এবং ডাক্তারদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সে যোগাযোগ করতে সহায়তা করতে পারে। এর মধ্যে মিত্র বা বন্ধু নামের রোবটগুলো সবচেয়ে জনপ্রিয়তা পেয়েছে। যার দাম পড়ছে ১০ হাজার মার্কিন ডলার বা বাংলাদেশি টাকায় সাড়ে আট লাখ টাকা।

এই রোবটে ফেসিয়াল রিকগনিশন টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়েছে। রোবটটি যেসব রোগীর সাথে যোগাযোগ করে তাদের নাম ও চেহারা মনে রাখতে পারে। এটি হাসপাতালে স্বাধীনভাবে চলাফেরাও করতে পারে। মিত্র রোগীদের চিকিৎসক এবং স্বজনদের সাথে ভিডিও কলে যোগাযোগ করিয়েও দিতে পারে। এজন্য রোবটটির বুকে একটি ভিডিও স্ক্রিন যুক্ত করা আছে।

উদ্ভাবক প্রতিষ্ঠান ইনভেন্টোর প্রদান নির্বাহী কর্মকর্তা বালাজি বিশ্বনাথান বলেন, মিত্র নার্স ও চিকিৎসকদের সহকারী হিসেবে কাজ করতে পারে। অনেক তথ্য সংরক্ষণ করতে পারে রোগীদের। যা চিকিৎসায় গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।

ভারতের উত্তরাঞ্চল নয়ডার এক হাসপাতাল দুইটি মিত্র রোবট ব্যবহার করছে। একটি রাখা হয়েছে হাসপাতালের প্রবেশপথে, যেটি করোনা উপসর্গ থাকা রোগীদের স্ক্রিনিং করছে। এবং আরেকটি কাজ করছে আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে)।

হাসপাতালের পরিচালক বার্তা সংস্থা সিএনএনকে জানান, আইসিইউতে থাকা মিত্র আমাদের রোগীদের ডাক্তার, তার স্বজনদের সাথে যোগাযোগ করতে সহায়তা করছে।

তিনি বলেন, রোবটটি যখনই রোগীদের কাছে যায়, তারা খুশি হন। এমনকি তারা মিত্রর সঙ্গে সেলফিও তুলে থাকেন।

বাজারজাতকারী প্রতিষ্ঠান ইনভেন্টোর শীর্ষ কর্মকর্তা বিশ্বনাথান বলেন, তারা রোবট তৈরিতে সর্বোচ্চ নিরাপদ প্রযুক্তির ব্যবহার করেছেন।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button