বিনোদন

“বেসিক ইন্সটিংক্ট’-এর শ্যুটিংয়ের সময় প্রতারণার শিকার হয়েছিলেন শ্যারন স্টোন

সালটা ১৯৯২, “বেসিক ইন্সটিংক্ট’ -এর শ্যুটিংয়ের সময় শ্যারন স্টোনকে ঠকানো হয়েছিল। অন্তরঙ্গ দৃশ্যের শ্যুটিংয়ের সময় পরিচালক তাকে মিথ্যে কথা বলে শট নিয়েছিলেন। যে কারণে, তিনি পরিচালক পল ভারহোভেনকে থাপ্পড় কষাতেও দ্বিধা করেনিনি অভিনেত্রী। সম্প্রতি, নিজের লেখা বই ‘দ্যা বিউটি অফ লিভিং টুইস’-এ একথা প্রকাশ্যে এনেছেন হলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী শ্যারন স্টোন।

বিজ্ঞাপন

সম্প্রতি, দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের লেখা বই নিয়ে নানান কথা বলেন শ্যারন স্টোন। অভিনেত্রী জানান, তিনি তার বইতে লিখেছেন, ‘বেসিক ইন্সটিংক্ট’ ছবির শ্যুটিং শেষে যখন পরিচালক, আইনজীবী সহ অন্যান্যদের সঙ্গে যখন ছবিটি দেখছিলেন, তখন হতবাক হয়ে যান।

বিজ্ঞাপন

শ্যারনের কথায়, ”শ্যুটিং সেটে মিথ্যে কথা বলে আমায় অন্তর্বাস খুলতে বলা হয়, আমাকে ঠকানো হয়েছিল।’ আমি বিশ্বাস করেছিলাম, ছবিতে আমার গোপনাঙ্গ দেখানো হবে না।”

শ্যারন স্টোন আরও জানান, ”এই দৃশ্যটি দেখার পর আমি প্রজেকশন বুথে গেলাম এবং পরিচালক পল ভারহোভেনকে থাপ্পড় কষালাম। পরে আমি বিষয়টি নিয়ে আমি আমার আইনজীবীর দ্বারস্থ হই। আমার আইনজীবী বলেন, ‘বেসিক ইন্সটিংক্ট’ ছবিটি যে পরিস্থিতিতে রয়েছে, এই অবস্থায় কোনওভাবেই এটি কোনওভাবেই মুক্তি দেওয়া যায় না।”

প্রসঙ্গত, ১৯৯২-এ মুক্তি পাওয়া ‘বেসিক ইন্সটিংক্ট’ ছবিটি সুপার হিট হয়। ২০০৬ সালে এই ছবির সিকুয়্যাল আসে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button