সারাদেশ

র‌্যাব পরিচয়ে ৭০ লাখ টাকা ছিনতাই

নারায়ণগঞ্জে রূপগঞ্জে ভূয়া র‌্যাব পরিচয়ে এক ইউপি চেয়ারম্যানকে অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে ৭০ লাখ টাকা ছিনতাইয়ের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় শুক্রবার (২০ মার্চ) রাতে মামলা হয়েছে বলে জানিয়েছেন রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মহসীনুল কাদির। 

বিজ্ঞাপন

তিনি জানান, ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের উপজেলার যাত্রামুড়া এলাকায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার বাঞ্চারামপুর উপজেলার পাহাড়িয়া কান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজীউর রহমানের মাইক্রোবাসে তল্লাশির কথা বলে শুক্রবার (২০ মার্চ) দুপুরে এই ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটে। ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।

পাহাড়িয়া কান্দি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান গাজীউর রহমান জানান, আমি পলোয়েল সুপার মার্কেটের রেডিমেইড পোশাকের ব্যবসায়ী। বুধবার রাজধানীর সোনালী ব্যাংক থেকে ৭০ লক্ষ টাকা উত্তোলন করে রাতে বেইলী রোডের বাসায় অবস্থান করি। সকালে বাঞ্চারামপুরের পাহাড়িয়া কান্দি ইউনিয়নস্থ নিজ বাড়ির উদেশ্যে আমি ও গাড়ির চালকসহ চারজন রওনা হই। সাদা রঙের মাইক্রোবাসটি রূপগঞ্জ উপজেলার যাত্রামুড়া এলাকায় একপি কালভাটের সামনে পৌছাঁলে র‌্যাবের পোশাক পরা অবস্থায় ৬ জন লোক গাড়িটি থামায়। তারা গাড়ির গ্লাস নামাতে বলে। গ্লাস খোলার পর একজন গাড়িতে ইয়াবা আছে তল্লাশী করতে হবে বলে গাড়িটি সড়কে থাকা ট্রাকের পেছনে নিয়ে রাখে। পরে গাড়ির দরজা খোলার পর তারা ৬ জন গাড়িতে উঠে পড়ে। তাদের দুই জনের কাছে ২টি অস্ত্র ছিলো, ওয়াকিটকি ও হ্যান্ডকাপও ছিলো। তারা আমাদের হাত পা, চোখ মুখ বেঁধে মারধর করে ৭০ লক্ষ টাকা নিয়ে গেছে। রাতে আমি মামলা করেছি।

মামলার এজহারে গাজীউর রহমান বলেন, ছিনতাইকারীরা গাড়ির চালক নওশাদকে নামিয়ে গাড়ির পেছনে নিয়ে বেঁধে রেখে। ওই সময় ডাকাত ডাকাত চিৎকার করায় ইউপি চেয়ারম্যান গাজিউর রহমান ও তার ভাগিনা মতিউর রহমান ও কর্মচারী কাউসারকে হাত পা, চোখ মুখ বেঁধে রাখে এবং মারধর করে। পরে সাথে থাকা ৭০ লক্ষ টাকা ছিনিয়ে নেয়। দুপুরে ভুলতায় ফ্লাইওভারের উপরে গাড়িটি থামিয়ে আমাদের গাড়িতে বসিয়ে রেখে গাড়ির চাবি নিয়ে চলে যায়। পরে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তারা ভুলতা পুলিশ ফাঁড়িতে গিয়ে অবস্থান করেন। রাতে রূপগঞ্জ থানায় মামলা করে পুলিশের সাহায্যে বাড়িতে ফেরেন।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন