আদমদিঘী উপজেলা

বগুড়া আদমদিঘীতে বঙ্গবন্ধুর জন্য দোয়া করায় চাকরি গেলো ইমামের

শুক্রবার (১৯ মার্চ) জুম্মার নামাজ শেষে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে মসজিদে দোয়া করার অপরাধে খতিবকে চাকরি থেকে বাদ ওদয়া হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

বিজ্ঞাপন

বগুড়ার আদমদীঘির তালশন দক্ষিনপাড়া জামে মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনায় এলাকাতে চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে।

জানা গেছে, সারাদেশের মত আদমদীঘি উপজেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশন সব মসজিদের ইমাম-খতিবদের জুমা’র নামাজের পর স্বাধীনতার স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে বিশেষ দোয়া করার নির্দেশ দেয়। এই নির্দেশের প্রেক্ষিতে উপজেলা সদরের তালশন পূর্বপাড়া জামে মসজিদের খতিব বয়ানের এ সংক্রান্ত ঘোষণা দিয়ে নামাজ আদায় শেষে দোয়া পরিচালনা করেন।

চাকরিচ্যুত ইমাম মাওলানা মো. সাদ্দাম হোসেন জানায়, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নির্দেশ মোতাবেক শুক্রবার জুম্মার ফরজ নামাজ শেষে বঙ্গবন্ধুর রুহের মাগফেরাত কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়। নামাজ শেষে মসজিদের সকল মুসল্লি মসজিদ ত্যাগ করার পর ঐ মসজিদের সাধারণ সম্পাদক (বিএনপি নেতা) আব্দুস ছাত্তার সরকার ইমামকে মসজিদে আসতে নিষেধ করে দেন।
তিনি জানান, গত ২ মাস যাবৎ বগুড়ার আদমদীঘির তালশন দক্ষিণপাড়া জামে মসজিদে ১২শ টাকা বেতনে মসজিদের ইমামতির চাকরিতে নিয়োগ পায় এবং সে সঠিক দায়িত্ব পালন করে আসছিলেন।

তবে আব্দুস ছাত্তার সরকার অভিযোগ সত্য নয় দাবি করে বলেন, সে নিয়োগপ্রাপ্ত খতিব নয়। ট্রায়ালে আছে। তাকে নিয়োগ দেওয়ার জন্য শিক্ষা সনদ চাওয়ায় সে ক্ষিপ্ত হয়ে চড়া কথা বলেন।

এ ব্যাপারে আদমদীঘি সদর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি এ্যাডভোকেট ওয়াহেদুজ্জামান বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নামে সারাদেশের সকল মসজিদে মসজিদে দোয়া হয়েছে। তালশন দক্ষিনপাড়া জামে মসজিদে বঙ্গবন্ধুর নামে দোয়া করার কারণে ইমামকে চাকরিচ্যুত করা কারণে ঐ মসজিদের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস ছাত্তারের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা প্রয়োজন।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন