শাজাহানপুর উপজেলা

বগুড়ায় রুবেল হত্যার মূল খুনি নান্নু সিআইডির হাতে গ্রেফতার

স্থানীয় প্রভাব বিস্তার এবং বিভিন্ন হাটের খাজনা উত্তোলনকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের ছুরিকাঘাতে নিহত হন বগুড়া শাজাহানপুর থানা এলাকার হরিণগাড়ী গ্রামের নজরুল সাকিদারের পুত্র রুবেল মিয়া (২৪)। ২০১৯ সালের ৭ এপ্রিল সন্ধ্যা অনুমান ৭.৩০ ঘটিকায় শাজাহানপুর থানা এলাকার টেঙ্গামাগুর বাসস্ট্যান্ডে প্রতিপক্ষ আসামীদের উপুর্যপােরি। ছুরিকাঘাতে রুবেল মিয়া নিহত হন।

এ ঘটনায় নিহত রুবেল মিয়ার পিতা নজরুল সাকিদার শাজাহানপুর থানায় গত ২০১৯ সালের ৯ এপ্রিল ৬ জন এজাহারনামীয় আসামী করে শাজাহানপুর থানার মামলা নম্বর ১৫ ধারা ৩০২/৩৪ পিসি দায়ের করেন।

শাজাহাপুর থানার এসআই মামলার তদন্তকাজ সমাপ্ত এবং মামলার এজাহারনামীয় আসামী নান্নু মিয়া (৪২)কে মামলার দ্বায়ভার হতে অব্যাহতির আবেদন করে মামলার তদন্তে অভিযুক্ত এজাহার বহির্ভুত ২ জনসহ এজাহারনামীয় ৫ জনদের বিরুদ্ধে ২০২০ সালের ২৫ জানুয়ারী আদালতে অভিযােগপত্র দাখিল করেন। বাদীর নারাজীর প্রেক্ষিতে আদালত মামলাটি অধিকতর তদন্তের সিআইডি বগুড়া জেলাকে আদেশ প্রদান করেন। আদালতের আদেশের প্রেক্ষিতে সিআইডি বগুড়া জেলার পুলিশ পিরদর্শক মাে: শামসুল আলম গত বছরের ২০ নভেম্বর মামলার অধিকতর তদন্তভার গ্রহন করেন।

৮ মার্চ সােমবার ভােররাতে তদন্তকারী অফিসারের নেতৃত্বে সিআইডি বগুড়া জেলার একটি টিম বিশেষ পুলিশ সুপার মােহাম্মদ কাউছার সিকদারের প্রত্যক্ষ দিক-নির্দেশনায় মামলার এজাহারনামীয় পলাতক আসামী শাজাহানপুর থানা এলাকার সাধরা গ্রামের রুস্তম আলীর পুত্র নানু মিয়া-কে নিজ বসতবাড়ী থেকে গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরণ করা হয়।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button