ধুনট উপজেলা

বগুড়ার ধুনটে প্রবাসীর ৫ বছরের শিশুকে গলা কেটে হত্যা

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় তাওহিদ সরকার নামের ৫ বছর বয়সী এক শিশুকে জবাই করে হত্যা করা হয়। শুক্রবার দুপুরে উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের ফকিরপাড়া গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। নিহত তাওহিদ ওই গ্রামের মালয়েশিয়া প্রবাসী আব্দুল গফুর সরকারের ছেলে।

বিজ্ঞাপন

নিহত তাওহিদের চাচা সোলায়মান সরকার জানান, শুক্রবার সকালে শিশু তাওহিদকে শয়ন ঘরে ঘুমিয়ে রেখে ওর মা দুলালী খাতুন বাড়ির সামনে আবাদী জমিতে কাজ করছিল। এসময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যরাও বাড়িতে ছিল না। কাজ শেষে দুলালী খাতুন ঘরে ফিরে শিশু তাওহিদকে গলাকাটা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখে। এরপর গলাকাটা অবস্থায় তওহিদকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাওহিদকে সেখানে মৃত ঘোষণা করেন।

বিজ্ঞাপন

নিহত তাওহিদের মা দুলালী খাতুন বলেন, সকালে আমি শাশুড়ির সঙ্গে বাড়ির সামনে আবাদী জমিতে কাজ করছিলাম। এসময় বাড়িতে কেউ ছিল না। তখন তাওহিদ আমাদের ঘরে ঘুমিয়ে ছিল। আমি ঘরে ফিরে তাওহিদকে গলাকাটা রক্তাক্ত অবস্থায় পরে থাকতে দেরি। তখনই চিৎকার দিয়ে ছেলেকে কোলে নিয়ে ঘর থেকে বের হই। এক প্রশ্নের জবাবে দুলালী খাতুন বলেন, কে এমন ঘটনা ঘটিয়েছে, তা বলতে পারছি না।

ধুনট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. পিয়াস পারভেজ বলেন, শিশু তাওহিদের গলা ধারালো অস্ত্র দিয়ে কাটা হয়েছে। হাসপাতালে আনার পূর্বেই সে মারা গেছে।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। শিশু তাওহিদকে হত্যায় ব্যবহৃত রক্তাক্ত বটি উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, প্রাথমিক ভাবে শিশু তাওহিদকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। তবে হত্যাকান্ডের কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত চলছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button