পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটশিক্ষা

পলিটেকনিক শিক্ষার্থীদের মেস খুলে দেয়ার নির্দেশ

আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি অনুষ্ঠিত পরীক্ষায় অংশ নিতে পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের শিক্ষার্থীদের জন্য ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাস খুলে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সর্বোচ্চ ৬০ শতাংশ শিক্ষার্থী ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাসে অবস্থান করতে পারবেন।

বুধবার (১৭ ফেব্রুয়ারি) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্য ও জনসংযোগ কর্মকর্তা এম এ খায়েরের স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ সিদ্ধান্ত জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, আগামী ২২ ফেব্রুয়ারি ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষাক্রমের ২য়, ৪র্থ, ৬ষ্ঠ ও ৮ম পর্ব অনুষ্ঠিত হবে। স্বাস্থ্যবিধি মেনে এই পরীক্ষায় অংশ নিতে ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাস খুলে দেওয়া হবে। পলিটেকনিগুলো শিক্ষার্থীদের ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাসে অবস্থান নেওয়াসহ পরীক্ষা অনুষ্ঠানের জন্য একটি কমিটি গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাসে অবস্থান নেওয়া, খাওয়া-দাওয়া করা এবং পরীক্ষায় অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশ দেওয়া হয়। স্বাস্থ্যবিধি মানার ক্ষেত্রে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করতে হবে, স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে এবং শারীরিক দূরত্ব বজায় রাখতে হবে।

কেন্দ্রীয়ভাবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষাবিভাগ আরেকটি কমিটি গঠন করবে। প্রতিষ্ঠানের মনিটরিং কমিটি এবং কেন্দ্রীয়ভাবে গঠন করা কমিটি শিক্ষার্থীদের স্বাস্থ্যবিধি মানা হচ্ছে কিনা তা পর্যবেক্ষণ করবে। স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবে।

মনিটরিং কমিটিগুলো তিনবেলা শিক্ষার্থীদের পর্যবেক্ষণ করে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা নিশ্চিত করবে। পলিটেকনিকগুলো স্বাস্থ্যবিধি মেনে পরীক্ষা অনুষ্ঠানের সুষ্ঠু ব্যবস্থা করবে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা অধিদফতর কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিবের কাছে ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাস খুলে দেওয়ার নির্দেশনা চায়। এতে বলা হয়, কারিগরি শিক্ষা অধিদফতরের আওতাধীন ৩৯টি পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের মধ্যে ২৫টি পলিটেকনিকের ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাসের ব্যবস্থা রয়েছে।

কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় ২৫টি ছাত্রাবাস ও ছাত্রীনিবাস বন্ধ ঘোষণা করা হয়।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button