জাতীয়

লাইসেন্স ছাড়া ‘ট্যুর প্যাকেজ’ পরিচালনা করলে জেল-জরিমানা

কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান ‘ট্যুর প্যাকেজ’ পরিচালনা করতে হলে লাইসেন্স বা নিবন্ধন নিতে হবে। লাইসেন্স ছাড়া কেউ কোনো ধরনের ‘ট্যুর প্যাকেজ’ ঘোষণা করলে ছয় মাসের কারাদণ্ড বা দুই লাখ টাকা জরিমানা অথবা উভয় দণ্ডে দণ্ডিত হবেন। এমন বিধান যুক্ত করে সরকার ‘বাংলাদেশ ট্যুর অপারেটর ও ট্যুর গাইড (নিবন্ধন ও পরিচালনা) আইন, ২০২১ নামে একটি নতুন আইন করতে যাচ্ছে।

আজ সোমবার মন্ত্রিসভার বৈঠকে নতুন এ আইনের খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়। বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় আইনের প্রস্তাবিত খসড়াটি মন্ত্রিসভায় উপস্থাপন করে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় সংসদ ভবনের মন্ত্রিসভার কক্ষে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে মন্ত্রিপরিষদ সচিব ড. খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রস্তাবিত আইনের খসড়ার বিষয়ে বলেন, দেশে অনেক সংস্থা রয়েছে যারা ট্যুর প্রোগ্রাম পরিচালনা করে আসছে। এদের মধ্যে শৃঙ্খলা রক্ষা করতে ও ভ্রমণকারীদের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে এই আইনটি করা হচ্ছে।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, আইনটি কার্যকর হলে একটি বিধি দ্বারা সবকিছু নিয়ন্ত্রণ করা হবে। নির্দিষ্ট ফি দিয়ে নিবন্ধন নিতে হবে। নিবন্ধন ছাড়া কেউ ট্যুর প্রোগ্রাম পরিচালনা করতে পারবে না। আইন লঙ্ঘন করলে বিভিন্ন মেয়াদে দণ্ড ও অর্থ দণ্ডের বিধান রাখা হয়েছে এ আইনে।

সচিব বলেন, এ ছাড়াও আজকের মন্ত্রিসভার বৈঠকে বয়লার আইনের খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button