বগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়ায় সিঁড়ি থেকে পড়ে এক শিক্ষকের মৃত্যু

বগুড়া শহরে থার্টিফার্স্ট নাইটে পিকনিক করতে গিয়ে নির্মাণাধীন ভবনের তৃতীয়তলার সিঁড়ি থেকে পড়ে আবদুল মতিন (৪৩) নামে এক শিক্ষক মারা গেছেন।

৩১ ডিসেম্বর দিবাগত রাতে শহরের নাটাইপাড়া বিলপাড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রথমে তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পরে ঢাকা নেয়ার পথে রাত ৪টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, আবদুল মতিন গাবতলী উপজেলার কালাইহাটা গ্রামের মৃত মোজাহার আলী প্রামাণিকের ছেলে। তিনি গাবতলীর ধোরা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক ছিলেন।

প্রতি বছরের মতো বৃহস্পতিবার রাতে থার্টিফার্স্ট নাইট উদযাপনে ২৬ জন বিভিন্ন পেশার বন্ধু মিলে পিকনিকের আয়োজন করেন। এবার টিপু মাস্টার নামে এক প্রধান শিক্ষকের নির্মাণাধীন তিনতলা ভবনের ছাদে রান্না ও খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছিল। রাত ৯টার দিকে আবদুল মতিন মোবাইল ফোনে কথা বলতে বলতে অরক্ষিত ও বাতিহীন সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় পা হড়কে পড়ে গিয়ে মাথায় আঘাত পান।

নিহত শিক্ষকের স্ত্রী জানান, তার স্বামীকে কেউ ধাক্কা দিয়ে ফেলে দিয়েছে, তিনি এমনটা সন্দেহ করেন না। শুক্রবার বাদ মাগরিব গ্রামের বাড়িতে পারিবারিক গোরস্থানে তাকে দাফন করা হয়েছে।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button