আন্তর্জাতিক খবর

করোনা টিকায় শুকরের উপাদান থাকলেও হারাম নয়: আমিরাতের ইসলামি বোর্ড

করোনার টিকায় শুকরের জেলটিন থাকলেও মুসলমানরা তা গ্রহণ করতে পারবে বলে অনুমতি দিয়েছে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ ইসলামী কর্তৃপক্ষ। টিকার সাধারণ একটি উপাদান জেলটিন।

আল আরাবিয়ার খবরে বলা হয়, মুসলমানদের করোনার টিকা গ্রহণের অনুমতি দিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ ইসলামি কর্তৃপক্ষ বলছে, করোনা মহামারি প্রতিরোধকারী টিকায় যেসব উপাদান ব্যবহার করা হয়েছে সেখানে শুকরের জেলটিন থাকলেও তা গ্রহণে সমস্যা নেই।

করোনার টিকায় শুকরের জেলটিন উপাদান থাকলে তা মুসলমানরা গ্রহণ করতে পারবে কিনা তা নিয়ে বিভিন্ন সময়ে বিভ্রান্ত ছাড়ানো হচ্ছে। আর এই বিভ্রান্ত দূর করতে সুস্পষ্ট বার্তা দিয়েছে সংস্থাটি। ইসলামের নিয়ম অনুযায়ী শুকরের মাংস কিংবা শুকরের যেকোনো উপাদান ব্যবহার মুসলমানদের জন্য হারাম হিসেবে বিবেচিত।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ ইসলামি কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান শেখ আবদাল্লাহ বিন বায়াজ বলেন, করোনাভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে শুকরের উপাদান দিয়ে তৈরি করা টিকা ছাড়া বিশ্বে অন্যকোনো টিকা যদি না পাওয়া যায়, তাহলে মানুষের জীবন রক্ষার্থে এই টিকা গ্রহণ হারাম হবে না। কারণ মানুষের জীবন রক্ষা গুরুত্বপূর্ণ।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের সর্বোচ্চ ইসলামি কর্তৃপক্ষের দায়িত্বে থাকা কয়েকজন কর্মকর্তা বলেন, শুকরের উপাদান দিয়ে তৈরি করোনার টিকা খাবার হিসেবে নয়, ওষুধ হিসেবে গ্রহণ করা হবে।

দেশটিতে গত বুধবার (২৩ ডিসেম্বর) দু’জনের শরীরে ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা প্রয়োগের মাধ্যমে দেশটিতে করোনা ভ্যাকসিন কার্যক্রম শুরু হয়েছে।

রাজধানী আবুধাবি এবং দুবাইসহ ৭টি আমিরাত নিয়ে সংযুক্ত আরব আমিরাত গঠিত। মঙ্গলবার (২২ ডিসেম্বর) দেশটিতে জরুরি টিকা প্রয়োগের অনুমোদন দেওয়া হয়। ওইদিনই বিদেশ থেকে আমিরাতে টিকার চালান পৌঁছায় বলে জানিয়েছে দেশটির রাষ্ট্রীয় বার্তা সংস্থা ডব্লিউএএম।
ফাইজার-বায়োএনটেকের টিকা দিয়ে দুবাইতে টিকাদান কার্যক্রম শুরু হয়েছে। টিকা গ্রহণকারী একজন নারী এবং এক পুরুষের ছবি দিয়ে দুবাই মিডিয়া অফিস এ তথ্য নিশ্চিত করেছে।

বলা হয়, প্রথমধাপে ৬০ বছরের বেশি বয়স্ক, জটিল রোগে আক্রান্ত তরুণ, বিশেষ কাজে নিয়োজিত ফ্রন্টলাইনার এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ কর্মকর্তা-কর্মাচারীদের টিকা দেওয়া হবে।

সূত্র : আল জাজিরা

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button