বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষা

বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় বিভাগ পরিবর্তন থাকছে না

দেশের ১৯টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে। আর এই পরীক্ষা নেওয়া হবে বিজ্ঞান, ব্যবসায় ও মানবিক ইউনিটে। এতে বিভাগ পরিবর্তনের জন্য আলাদা ইউনিট থাকছে না। ফলে বিপাকে পড়েছেন দ্বিতীয় দফায় ভর্তিচ্ছুরা।

গত ১৯ ডিসেম্বর এক সভায় সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, ১০০ নম্বরের এমসিকিউ প্রশ্নপত্রে এই ১৯ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি নেওয়া হবে। তবে, এতে বিভাগ পরিবর্তনের জন্য আলাদা ইউনিট থাকবে না। তবে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) বাদে বাকি স্বায়ত্তশাসিত ৩ বিশ্ববিদ্যালয়ে (ঢাকা, চট্টগ্রাম ও রাজশাহী) দ্বিতীয়বার ভর্তি পরীক্ষার সুযোগ নেই। ফলে আগের নিয়মেই ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে।

স্বায়ত্তশাসিত এই ৪ পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে বিভাগ পরিবর্তন ইউনিট থাকলেও ১৯ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি পরীক্ষায় সেই সুযোগ থাকছে না। এজন্য বিপাকে পড়েছেন গত দুই বছর ধরে সেকেন্ড টাইমের প্রস্তুতি নেওয়া ভর্তিচ্ছুরা। এই অবস্থায় এসব ভর্তিচ্ছু বিভাগ পরিবর্তন ইউনিট বহাল রাখার পাশাপাশি বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান পরীক্ষায় অন্তর্ভুক্ত রাখার দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন। বিভিন্ন জেলা ও বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে তারা কর্মসূচি পালন করছেন।

তাদের কর্মসূচিতে ৩টি দাবি জানানো হয়েছে। দাবিগুলো হলো, গুচ্ছ পদ্ধতিতে আলাদাভাবে বিভাগ পরিবর্তনের পরীক্ষা নেওয়া; সব ইউনিটে বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান রাখা; বিভাগ পরিবর্তনে শুধু বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে পরীক্ষা নেওয়া।

এ বিষয়ে গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার যুগ্ম আবায়ক ও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, ১৯টি সাধারণ এবং বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষায় বিভাগ পরিবর্তনের জন্য আলাদা ইউনিট থাকছে না। ফলে নিজ নিজ বিভাগ থেকে পরীক্ষার মাধ্যমেই শিক্ষার্থীরা বিভাগ পরিবর্তন করতে পারবে।

সেকেন্ড টাইমারদের বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তিচ্ছুরা বলছেন, হঠাৎ এমন অযৌক্তিক নিয়ম আমরা মানি না। এমন সিদ্ধান্ত আমাদের মতো হাজার হাজার ওপর এক ধরনের জুলুম ছাড়া। আগের নিয়মে বাংলা, ইংরেজি ও সাধারণ জ্ঞান বিষয়ে পরীক্ষা দিয়ে বিভাগ পরিবর্তনের সুযোগ দিতে হবে।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button