বগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়া আলতাফুন্নেছার অস্থায়ী বাজার আবারও পূর্বের স্থানে

বগুড়া ফতেহ আলীতেই ফিরছেন বগুড়া শহরের আলতাফুন্নেছা খেলার মাঠে স্থানান্তর হওয়া কাঁচাবাজার ব্যবসায়ীরা।

২৪ ডিসেম্বর বৃহস্পতিবার বিকাল ৩ টার দিকে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের এক জরুরী সভায় ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। তবে সকল ব্যবসায়ীকে অবশ্যই স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে বলে জানিয়েছেন জেলার অতিরিক্ত ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) সালাহউদ্দিন আহমেদ।

করােনা প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় এর আগে গত শুক্রবার জেলা প্রশাসনের সঙ্গে ব্যবসায়ীদের এক সভায় নেওয়া সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শহরের ফতেহ আলীসহ প্রধান কাঁচাবাজারগুলাে আলতাফুন্নেছা খেলার মাঠে স্থানান্তর হয়। কিন্তু স্থানান্তরের প্রথম দিনের পর থেকেই ব্যবসায়ীরা কেনাবেচা আশানুরূপ না। হওয়ার অভিযােগ করেন। পরে তারা দোকান বন্ধ করে দিয়ে অঘােষিত ধর্মঘটে যান।

রাজাবাজার ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক পরিমল প্রসাদ রাজ জানান, জেলা প্রশাসনের সাথে কাঁচাবাজার ব্যবসায়ীদের এক জরুরী সভায় সিদ্ধান্ত হয় ব্যবসায়ীরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে ২৫ ডিসেম্বর থেকে আগের জায়গাতেই ফিরতে পারবেন।

সালাহউদ্দিন আহমেদ জানান, করােনা সংক্রমণের বিস্তার রােধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাস্ক ব্যবহার করে সীমিত পরিসরে দোকান আগের জায়গায় দেওয়ার। অনুমতি দিয়েছে জেলা প্রশাসন। এক্ষেত্রে প্রতিদিন বাজারে খাসির মাংসের ১৯ টির মধ্যে ৮/৯ টি, গরুর মাংসের ৮ টির মধ্যে ৪ টি, মুরগীর ২০ টির মধ্যে ১০ টি, মাছের ১২০ টির মধ্যে ৫০ টি দোকান খােলা রাখার অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

বৃহস্পতিবার শহরের কাঁচাবাজার ব্যবসায়ীদের সাথে জেলা প্রশাসনের ওই জরুরী সভায় আরও উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল ফয়সাল মাহমুদ, বগুড়া চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাষ্ট্রির সহ- সভাপতি আমিনুল হক, রাজা বাজার ব্যবসায়ী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক পরিমল প্রসাদ রাজ, রেল লাইন বাজার কমিটির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নান, ফতেহআলী বাজার দোকান মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাফিজার রহমান, ফতেহআলী বাজার কাঁচামাল ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলাল শেখ।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button