খেলাধুলা

মেসি-রোনালদোকে পেছনে ফেলে ফিফা বর্ষসেরা ফুটবলার রবার্ট লেভান্ডোভস্কি

মেসি-রোনালদোকে পেছনে ফেলে বর্ষসেরা ফুটবলারের পুরস্কার, ফিফা দ্য বেস্ট পেলেন বায়ার্ন মিউনিখ তারকা রবার্ট লেভান্ডোভস্কি। চ্যাম্পিয়ন্স লিগসহ বায়ার্নকে ট্রেবল জেতানোর স্বীকৃতিতে এমন সম্মননা পোলিশ স্ট্রাইকারকে। টানা দ্বিতীয়বার বষর্সেরা কোচ য়্যুর্গেন ক্লপ আর সেরা নারী ফুটবলার হয়েছেন ম্যানচেস্টার সিটির ইংলিশ ডিফেন্ডার লুসি ব্রোঞ্জ।

ছয় বারের সেরা মেসি নন। নন ৫ বারের ফিফা দ্যা বেস্ট জয়ী রোনালদো। গেলো মৌসুমে পারফরম্যান্সের নিরীখে ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার হতে যাচ্ছেন রবার্ট লেভান্ডোভস্কি অনুমেয়ই ছিলো। হলোও তাই।

প্রথমবারের মত ফিফা দ্যা বেস্ট অ্যওয়ার্ড জিতলেন বায়ার্ন ও পোলিশ স্ট্রাইকার। নিজ হাতে অ্যাওয়ার্ড তুলে দিয়ে স্বয়ং ফিফা সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো চমকে দিলেন লেভান্ডোভস্কিকে।

জার্মান লিগ আর চ্যাম্পিয়্ন্স লিগের সর্বোচ্চ গোল দাতা, বায়ার্নের ট্রেবল জয়ের নায়ক, সবমিলিয়ে মৌসুমে ৪৭ ম্যাচে ৫৫ গোল। দূরন্ত এ ফিনিশারের হাতেই তো শোভা পায় ট্রফিটা।

ফিফার বর্ষসেরা ফুটবলার রবার্ট লেভান্ডোভস্কি জানান, ‘মেসি, রোনালদোদের সাথে একই মঞ্চে অ্যাওয়ার্ড শেয়ার করা অবিশ্বাস্য এবং আমার কাছে বিশেষ কিছু।’

বায়ার্নের সাফল্যের নেপথ্য কারিগর আরো একজন। তিনি হ্যান্সি ফ্লিক। কিন্তু সবাইকে অবাক করে টানা দ্বিতীয় বারের মত বর্ষসেরা কোচের পুরস্কার জিতে নিলেন লিভারপুল বস য়্যুর্গেন ক্লপ। গতবার অল রেডদের চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জেতায় ভূমিকা রেখেছিলেন। এবার ত্রিশ বছর পর লিগ শিরোপা জয়ের স্বীকৃতি পেলেন।

লিভারপুল কোচ য়্যুর্গেন ক্লপ জানান, ‘আমি সত্যিই অবাক হয়েছি। অনেককে ধন্যবাদ দিতে চাই। বিশেষ করে কোচদের। ফুটবলারদের জন্যই আমার এই সফলতা।’

তবে বর্ষসেরা গোলরক্ষকের অ্যাওয়ার্ড পুনরূদ্ধার করেছেন লেভান্ডোভস্কির সতীর্থ ম্যানুয়েল ন্যয়ার। গেলোবার লিভারপুল গোলরক্ষক অ্যালিসন হাতে উঠেছিলে এই পুরস্কার।

বর্ষসেরা গোলের পুস্কাস অ্যাওয়র্ড জিতে নিয়েছেন সন হিউং মিন। ইংলিশ লিগে বার্নলির বিপক্ষে একক প্রচেষ্টায় টটেনহ্যাম ফরোয়ার্ডের গোলটা নজর কেড়েছে ফুটবল বিশ্বের।

এছাড়াও টানা তৃতীয় বারের মত বর্ষসেরা নারী ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন ম্যানসিটি ডিফেন্ডার লুসি ব্রোঞ্জ।

করোনায় সুইজারল্যান্ডের নিওনের এই অনুষ্ঠান হয়েছে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে। যেখানে না থেকেও ছিলেন দুই ফুটবল কিংবদন্তী দিয়েগো আরমানন্দো মারাদোনা ও পাওলো রসি। প্রয়াত এ দু ফুটবল গ্রেটকে স্মরন করতে ভোলেনি ফিফা।

কোভিড নাইটিনের সাথে যুদ্ধ করা চিকিৎসক আর সাস্থ্যসেবীদেরও সম্মান জানিয়েছে বৈশ্বিক ফুটভলের নিয়নন্তা সংস্থা। এছাড়াও শিশু দারিদ্রতা দূরিকরনে অবদান রাখায় বিশেষ সম্মাননা পেয়েছেন ম্যানচ্যাস্টার ইউনাইটেড ফরোয়ার্ড মার্কাস র‍্যাশফোর্ড।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button