বগুড়া

বগুড়ায় ১২৩ জন বীর পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পুলিশ পরিবারকে জেলা পুলিশের সংবর্ধনা

মহান বিজয় দিবস-২০২০ ইং উপলক্ষ্যে বগুড়ায় জেলা পুলিশের উদ্যোগে অবসরপ্রাপ্ত বীর পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পুলিশ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে।

বুধবার বিজয় দিবসের সকালে পুলিশ লাইন্স অডিটোরিয়ামে বগুড়ার নিবাসী কিন্তু মুক্তিযুদ্ধের সময় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে যুদ্ধে অংশ নিয়েছিলেন পুলিশ পরিবারের এমন ১২৩ জনকে প্রতি বছরের ন্যায় এইবছরও সংবর্ধণা প্রদান করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরীর সঞ্চালনায় সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম (বার)। প্রধান অতিথির বক্তব্যে অবসরে যাওয়া মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্যদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান যুগের পর যুগ এদেশে স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। তারা শুধু পুলিশের দায়িত্বই পালন করেননি, যুদ্ধ করে উপহার দিয়েছে স্বাধীনতা। বগুড়ায় তাদের যেকোন আইনি সহায়তা প্রয়োজনে সরাসরি তার সাথে যোগাযোগ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি সকলের প্রতি গভীর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করেন। অনুষ্ঠানে এসপি আলী আশরাফ আরো বলেন মুক্তিযুদ্ধ, স্বাধীনতা ও সংবিধান বিরোধী একটি অপচক্র এখনো এই বাংলার মাটিতে ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে যাদের প্রতিহত করতে সর্বদা সকলকে সর্তক থাকতে হবে। সংবর্ধনাপ্রাপ্ত অবসরে যাওয়া মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্য ও শহীদ পুলিশ পরিবারের সদস্যদের মাঝে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (অব:) ইমতেজার রহমান, পুলিশ পরিদর্শক (অব:) যথাক্রমে মনসুর রহমান ও আজিজুল ইসলাম, শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পুলিশ সদস্য আব্দুর রাজ্জাক এর ছেলে ট্রাফিক ইন্সপেক্টর সালেকুজ্জামান খান, পুলিশ কন্সটেবল (অব:) আব্দুল ওয়াহেদ আকন্দ, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (অব:) তোফাজ্জল হোসেনের ছেলে আলমগীর কবির এবং আরেক পুলিশ সদস্যদের ছেলেন মো: সাফায়েতুল্লাহ।

প্রতি বছর বগুড়া জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে এই সংবর্ধনা পেয়ে আবেগপ্লুত হয়ে তারা সংশ্লিষ্টদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং অনুভূতি প্রকাশের সময় বক্তারা বলেন দেশের জন্যে তাদের শ্রম ও ত্যাগ স্বার্থক কারণ স্বাধীন বাংলার মানুষ আজ মুক্তিযোদ্ধাদের অবদান বুঝতে পারে যা অনেকটাই সম্ভব হয়েছে বর্তমান সরকারের নানামুখী উদ্যোগের কারণে।

বগুড়ানিবাসী মুক্তিযুদ্ধে অংশ নেয়া এই ১২৩ জন পুলিশ সদস্যের মাঝে ডিআইজি ও পুলিশ সুপার রয়েছেন ১ জন, এএসপি ৩ জন, ইন্সপেক্টর রয়েছেন ১৮ জন, এসআই ১৫ জন, এএসআই ১৪ জন এবং কন্সটেবল রয়েছেন ৭১ জন।

শুধু তাই নয় বগুড়ায় কর্মরত থাকা অবস্থায় শহীদ হওয়া ১৮জন পুলিশ সদস্যের অবদানও গভীর শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করা হয় উক্ত সংবর্ধণা অনুষ্ঠানে।

অনুষ্ঠানে এসময় অন্যান্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার যথাক্রমে আব্দুর রশিদ (অপরাধ), মোতাহার হোসেন (ডিএসবি), রফিকুল আলম (ইন-সার্ভিস), ফয়সাল মাহমুদ (সদর সার্কেল ও জেলা পুলিশের মিডিয়া মুখপাত্র) সহ ইন্সপেক্টর অর্পণ কুমার দাস, জেলা গোয়েন্দা শাখার ওসি আব্দুর রাজ্জাক প্রমুখ।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button