বিশ্ববিদ্যালয়শিক্ষা

করোনার কারনে বিশ্ববিদ্যালয়েও সেশন জটের শঙ্কা

করোনার কারণে ধীরগতি এসেছে জীবনের সব ক্ষেত্রেই। বাদ যায়নি শিক্ষা ব্যবস্থাও। ক্যাম্পাস বন্ধ থাকায় শীর্ষ বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর শিক্ষার্থীদের মাঝে ভর করেছে সেশন জটের আশঙ্কা। বিষয়টাকে একেবারে উড়িয়ে দিচ্ছে না প্রশাসন। তবে যতটা সম্ভব কমিয়ে আনার আশ্বাস তাদের।

চলমান মহামারির কারণে নতুন স্বাভাবিক জীবনে অনেক কিছুতেই প্রাণ ফিরেছে। বাকি শুধু শিক্ষা প্রতিষ্ঠান।

দীর্ঘ নয় মাস ধরে বন্ধ একেকটা ক্যাম্পাস। মুখরিত জীবনের বদলে যাওয়া রূপও সৌন্দর্যের ডালি খুলেছে এসব উচ্চ শিক্ষালয়ে। কিন্তু এই রূপে খুব একটা মুগ্ধ নন শিক্ষার্থীরা। তাদের মনে জমেছে সেশনজট নামের জুজুর ভয়।

এই হতাশা দূর করতে চেষ্টার কমতি নেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ও বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়-বুয়েটের। এমনিতে পাঠদান চলছিল ভার্চুয়ালি। এখন চেষ্টা চলছে থমকে যাওয়া পরীক্ষা নেয়ার।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ২৬ ডিসেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে বিভিন্ন বিভাগের পরীক্ষা। এই আয়োজনে অগ্রাধিকার পাবে অনার্স শেষ বর্ষ ও মাস্টার্স। অ্যাসাইনমেন্ট-মৌখিক বা টেকহোম পদ্ধতিতে নেয়া হবে এসব পরীক্ষা।

বুয়েট বলছে, সেশনজট কমাতে ভার্চুয়ালি পরীক্ষা নেয়া হবে জানুয়ারিতে। মূল্যায়ন পদ্ধতিতেও আসছে পরিবর্তন। যেসব বিশ্ববিদ্যালয়ে সেশনজট আগে থেকেই বেশি, তারাও এমন পদ্ধতিতে সামনে এগুতে পারে বলেও পরামর্শ এই শিক্ষকের।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button