খেলাধুলা

কোচের সঙ্গে বিতন্ডার পর আবেগের বশে কাঁদলেন বিজয়

বঙ্গবন্ধু টি টোয়েন্টি এর ১৪ ডিসেম্বরের প্লে-অফ ম্যাচ সামনে রেখে শনিবার ছিল প্রথম দিনের দলীয় অনুশীলন। মিরপুর জাতীয় ক্রিকেট একাডেমির মাঠে অনুষ্ঠিত এই অনুশীলনে দেখা গেল হেড কোচ মিজানুর রহমানের সঙ্গে তুমুল বিতন্ডায় জড়িয়েছেন দলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান এনামুল হক বিজয়। আবেগ বশে রাখতে না পেরে এক পর্যায়ে কেঁদেও ফেললেন তিনি।

টুর্নামেন্টের প্লে অফ নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় জেমকন খুলনা এখন বেশ নির্ভার। যদিও প্লে অফের অবস্থান এখনো নির্ধারিত হয়নি। ৮ ম্যাচে ৪ জয় ঘরে তুলেছে মাহমুদউল্লাহ-মাশরাফি শিবির।

শেষ চার সামনে রেখে ১২ ডিসেম্বর (শনিবার) প্রথম দিনের অনুশীলনের শুরুটা জেমকন খুলনা ফুটবল দিয়ে করেছিল। ফুটবল ম্যাচ শেষ হতেই দেখা যায় এনামুল হক বিজয় বিষণ্ণ মুখে চেয়ারে বসা। ঠিক তখনই কোচ মিজানুর বাবুল তাকে নেট ব্যাটিংয়ের জন্য ডেকে পাঠান। বিজয় কি করলেন? কোচের ডাক শুনে কিট ব্যাগ থেকে ব্যাট, প্যাড ও গ্লাভস হাতে নিয়ে মাটিতে ছুড়ে ফেলতে শুরু করলেন। পুরো অবয়বে ছিল হতাশার সুস্পষ্ট ছাপ। এরপর দেখা যায় প্যাডআপ করে তিনি টিম ম্যানেজার নাফিস ইকবালের সঙ্গে কথা বলছেন।

ম্যানেজারের সঙ্গে কথা শেষ করে যখন নেটে ব্যাটিংয়ের উদ্দেশে যাচ্ছিলেন তখন কোচ মিজানুর রহমান বাবুলের সঙ্গে বেশ রেগেমেগে কথা বলছিলেন। দূর থেকে বোঝা যাচ্ছিল, তার সঙ্গে তুমুল বিতন্ডা চলছে। মিনিট দশেকের বিতন্ডা শেষে কেঁদে ফেলেন বিজয়। এরপর টিম মানেজার নাফিস ইকবালের মধ্যস্থতায় তা শেষ হয়। নেটে ফিরে যান বিজয়।

তার এমন রাগের পিছনে সঙ্গত কারণও রয়েছে। টুর্নামেন্টে ব্যাট হাতে যে পারফরম্যান্স তাতে হয়ত তিনি সন্তুষ্ট নন মোটেই। ব্যাটে রান নেই বিধায় খুলনার একাদশ থেকে বাদ পড়েছেন। ৪ ম্যাচে ৪১ রান করার পর তাকে একাদশ বাদ দেওয়া হয়। সবশেষ ম্যাচে আরেক টপ অর্ডার ইমরুল কায়েস না খেললেও দলে বিজয়ের জায়গা হয়নি। সেকারণেই হয়ত মানষিকভাবে তিনি বিষণ্ণ ও রুদ্র। তাছাড়া দলের যে কম্বিনেশন দাঁড়িয়ে গেছে তাতে আগামীতে আর সুযোগ পাবেন কিনা সেই শঙ্কাও প্রবল। কেননা তার জায়গাটি নিয়ে নিয়েছেন উইকেটরক্ষক বাটসম্যান জাকির হাসান।বিজ্ঞাপন

অবশ্য বিজয়ে আজকের বিষণ্ণতা ও বিতন্ডার পেছনে আরো কারণ ছিল। জানা গেছে, অনুশীলনের শুরুতে তিনি নেট ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি। তাছাড়া ব্যাটিংয়ের আগে তাকে নতুন বলও দেওয়া হয়নি। একজন টপ অর্ডার হিসেবে তিনি হয়ত আশা করেছিলেন নেট সেশনের শুরুতে পেসারদের বিরুদ্ধে অনুশীলন করবেন। সেটা হয়নি। বিজয়ের দিনটি আজ এতটাই খরাপ গেল যে ব্যাটিংয়ে গিয়েও হাতে চোট পেয়েছেন।

এ বিষয়ে জেমকন খুলনার কোচ মিজানুর রহমানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, এটা তেমন কোনো ব্যাপার না। সে ছোট মানুষ, আমাদের সামনেই ক্রিকেট শিখেছে। তেমন কিছু না এটা, আপনারও অন্যভাবে নিবেন না।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button