খেলাধুলা

টেস্ট র‌্যাঙ্কিংয়ে ৪ নম্বরে আছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার সাকিব

নিষিদ্ধ হওয়ার সময় আইসিসি টেস্ট অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের তৃতীয় স্থানে ছিলেন সাকিব আল হাসান। নিষেধাজ্ঞা শেষ হওয়ার পর প্রথম র‌্যাঙ্কিং হালনাগাদে চার নম্বরে আছেন বাংলাদেশের অলরাউন্ডার।

নিউজিল্যান্ড ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের প্রথম টেস্ট শেষে গতকালই টেস্টের সবশেষ র‌্যাঙ্কিং প্রকাশ করে আইসিসি। তাতে সাকিবের রেটিং পয়েন্ট ৩৬৬। হ্যামিল্টন টেস্টে ভালো করতে না পারায় শীর্ষস্থান হারিয়েছেন ওয়েস্ট ইন্ডিজের অধিনায়ক জেসন হোল্ডার। শীর্ষে উঠেছেন বেন স্টোকস। ইংলিশ অলরাউন্ডারের চেয়ে ১ পয়েন্টে এগিয়ে শীর্ষে ছিলেন হোল্ডার। স্টোকস এখন এগিয়ে আছেন ১২ পয়েন্টে। তার পয়েন্ট ৪৪৬, হোল্ডারের ৪৩৪। ৩৯৭ পয়েন্ট নিয়ে তিনে আছেন ভারতের রবীন্দ্র জাদেজা।

জুয়াড়ির কাছ থেকে প্রস্তাব পেয়েও সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে না জানানায় গত বছরের ২৮ অক্টোবর এক বছরের জন্য নিষিদ্ধ হন সাকিব। র‌্যাঙ্কিংয়ের নিয়ম অনুযায়ী কোনো ক্রিকেটার এক বছর বা এর বেশি সময় নিষিদ্ধ হলে র‌্যাঙ্কিংয়ের বাইরে রাখা হয় তাকে। তিন সংস্করণেই র‌্যাঙ্কিং থেকে তাই কাটা পড়ে সাকিবের নাম। নিষেধাজ্ঞা থেকে ফেরার পর ওয়ানডে র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম হালনাগাদেই তিনি ফিরে পান অলরাউন্ডারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে শীর্ষস্থান। টি-টোয়েন্টি র‌্যাঙ্কিংয়ের প্রথম হালনাগাদেও ফেরেন আগের দ্বিতীয় অবস্থানে থেকে। টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে সাকিব আছেন ৩৭তম স্থানে। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানদের মধ্যে সবার ওপরে মুশফিকুর রহিম, তার অবস্থান ১৮তম। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে ২২তম স্থানে থাকা সাকিবই বাংলাদেশিদের মধ্যে সবার ওপরে। ২৬তম স্থান নিয়ে তার পরে আছেন তাইজুল ইসলাম।


এদিকে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলে আইসিসির টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই ধাপ এগিয়েছেন নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসন। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির সঙ্গে যৌথভাব আছেন দুই নম্বরে। হ্যামিল্টন টেস্টে ইনিংস ও ১৩৪ রানে ক্যারিবিয়ানদের হারায় স্বাগতিকরা। এই জয়ে সবচেয়ে বড় অবদান ছিল উইলিয়ামসনের। ১০ ঘণ্টা ২৪ মিনিট উইকেটে থেকে ২৫১ রানের ইনিংস খেলেন উইলিয়ামসন। ৭৪ পয়েন্ট পেয়ে উইলিয়ামসনের রেটিং পয়েন্ট বেড়ে হয়েছে কোহলির সমান ৮৮৬। ব্যাটসম্যানদের মধ্যে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছেন অস্ট্রেলিয়ার স্টিভেন স্মিথ।


ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যানদের মধ্যে র‌্যাঙ্কিংয়ে উন্নতি হয়েছে জার্মেইন বø্যাকউডের। দ্বিতীয় ইনিংসে সেঞ্চুরি করা এই ব্যাটসম্যান ১৭ ধাপ এগিয়ে আছেন ৪১তম স্থানে। আলজারি জোসেফ ৮৬ রানের ইনিংস খেলে লম্বা লাফ দিয়েছেন র‌্যাঙ্কিংয়ে। ৩১ ধাপ এগিয়ে হয়েছেন ১২৩তম। পেয়েছেন ক্যারিয়ার সেরা ২১৯ পয়েন্ট।


বোলারদের মধ্যে নিউজিল্যান্ডের নিল ওয়্যাগনার ফিরেছেন ক্যারিয়ার সেরা র‌্যাঙ্কিংয়ে। ম্যাচে ছয় উইকেট নিয়ে ইংল্যান্ডের স্টুয়ার্ট ব্রডকে টপকে উঠে এসেছেন দ্বিতীয় স্থানে। ২০১৯ সালেও দুই নম্বরে উঠেছিলেন এই পেসার। এক যুগ ধরে টেস্ট খেলা টিম সাউদি অর্জন করেছেন ক্যারিয়ার সেরা ৮১৭ পয়েন্ট, আছেন চতুর্থ স্থানে। ওয়েস্ট ইন্ডিজ অধিনায়ক জেসন হোল্ডার দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথমটিতে নিতে পারেননি কোনো উইকেট। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ে দুই ধাপ নিচে নেমে এখন আছেন সাতে। বোলারদের র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষস্থানেও পরিবর্তন হয়নি, আছেন অস্ট্রেলিয়ান পেসার প্যাট কামিন্স।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button
error: Content is protected !!