জাতীয়

করোনার অজুহাত দিয়ে অফিসে অনুপস্থিত থাকা যাবেনা

ইতিমধ্যে বাংলাদেশও করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে প্রস্তুতির নির্দেশ দিয়েছে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সতর্ক থাকতে সম্প্রতি নির্দেশনা দিয়ে অফিস আদেশ জারি করেছে শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়। এতে করোনা সম্পর্কে সতর্ক থাকার পাশাপাশি অফিসে উপস্থিত থাকার বিষয়ে করোনার অজুহাত চলবে না বলে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

আদেশে বলা হয়েছে, কোভিড-১৯ এর দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবিলায় শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ে কর্মরত সবাইকে সতর্ক থাকার পরামর্শ দিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।

বৈশ্বিক এ মহামারী প্রতিরোধে পাঁচটি অনুশাসন প্রতিপালনেরও নির্দেশনা দেয়া হয়েছে অফিস আদেশে।

* কোনো কর্মকর্তা-কর্মচারীর মধ্যে কোভিড-১৯ এর লক্ষণ যেমন- জ্বর, সর্দি, কাশি বা অন্যান্য উপসর্গ প্রকাশ পেলে মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন শাখাকে অবহিত করে নিজ নিজ বাসায় অবস্থান করতে হবে।

* কোভিড-১৯ এর উপসর্গ দেখা দিলে দ্রুত পরীক্ষা করাতে হবে এবং পরীক্ষায় কোভিড-১৯ নেগেটিভ হলে কোনো অজুহাতেই অফিসে অনুপস্থিত থাকা যাবে না।

* কারও করোনা পজিটিভ হলে সেই কর্মকর্তা-কর্মচারীকে পরবর্তী কোভিড-১৯ নেগেটিভ না হওয়া পর্যন্ত বাসায় অবস্থান করে চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। রিপোর্ট নেগেটিভ আসলে মন্ত্রণালয়কে অবহিত করে অফিসে উপস্থিত হতে হবে।

* কর্মস্থলে অবস্থানকালে আবশ্যিকভাবে স্বাস্থ্যবিধি যথাযথভাবে অনুসরণ করে সাবান পানি দিয়ে হাত ধুতে হবে এবং মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে হবে।

* পরীক্ষায় কোভিড-১৯ নেগেটিভ/পজেটিভ যাই হোক মন্ত্রণালয়ের প্রশাসন শাখায় ওই রিপোর্টের অনুলিপি পাঠাতে হবে।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button
error: Content is protected !!