আইন ও অপরাধবগুড়া

বগুড়ায় ইজি বাইক থেকে চাঁদা আদায়ের সময় গ্রেফতার ১

২৬ শে নভেম্বর ২০২০ তারিখ বেলা ১২.০০ টার সময় বগুড়ার সদর পুলিশ ফাড়িঁর পুলিশ সদস্য বগুড়া সদর থানাধীন সাতমাথাস্থ সাতানী বাড়ীর গলির মুখে ব্যাটারী চালিত ইজি বাইক থেকে চাঁদা আদায়ের সময় হাতে নাতে চাঁদা আদায়ের ১৮ শত ২০ টাকা সহ বগুড়া সদর উপজেলার সূত্রাপুর (তেতুলতলার) গ্রামের মৃত আব্দুল হাকিমের ছেলে মোঃ কামরুল হাসান ওরফে তন্ময় (২৯) কে গ্রেফতার করা হয়। থানায় পেনাল কোড আইনের ৩৮৫/৩৮৬ ধারায় মামলা দায়ের।

পুলিশ সূত্রে জানা যায় যে, কতিপয় ব্যক্তি সাতানী বাড়ীর গলির মুখে রাস্তায় চলাচলরত ব্যাটারী চালিত ইজি বাইক চালকদের নিকট থেকে ভয়ভীতি দেখে ১০/২০ টাকা করে চাঁদা আদায় করছে। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে সদর পুলিশ ফাড়িঁর ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ এস আই (নিঃ) মোঃ খোরশেদ আলম রবির নেতৃত্বে সঙ্গীয় ফোর্সসহ ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়ে মোঃ কামরুল হাসান ওরফে তন্ময়কে চাঁদা আদায়ের নগদ ১,৮২০/- টাকাসহ গ্রেফতার করে এবং সেখান হতে অজ্ঞাতনামা ২/৩ জন পলাইয়া যায়।

স্থানীয়ভাবে অনুসন্ধানে জানা যায় যে, ক্ষমতাশীল দলের কিছু নেতা শহরের সাতানী বাড়ীর গলিসহ বিভিন্ন জায়গায় চলাচলরত ব্যাটারী চালিত ইজি বাইক ও ভ্যানদের নিকট থেকে চাঁদা আদায়ের জন্য তাদের পোষা কিছু ছেলেদেরকে নিয়োজিত করে এবং অসহায় গরীব দিন মজুর চালকের প্রত্যেকের নিকট থেকে প্রতিদিন দু’বেলা ২০/৩০ টাকা করে চাঁদা আদায় করে। অন্যথায় তারা রাস্তায় ইজি বাইক ও ভ্যান চালাতে পারে না। আরো জানা যায় যে, প্রতিদিন সাতানী বাড়ীর রোড, শেরপুর রোড সহ বিভিন্ন রোড থেকে হাজার হাজার টাকা আদায় করে বর্তমানে উক্ত ক্ষমতাশীল দলের নেতাদের আঙ্গুল ফুলে কলার গাছ হয়ে গেছে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক উক্ত রাস্তায় কয়েকজন ইজি বাইক চালক জানান, আমরা প্রতিদিন ৩০০/৪০০ টাকা করে ভাড়া খাটি তারমধ্যে চার্জের টাকাসহ গাড়ীর মালিককে প্রতিদিন ২০০ টাকা করে দিতে হয়। আমাদের কাছে থাকে ১৫০/২০০ টাকা এটা দিয়ে আমাদের অভাবের সংসার চালানো খুব কঠিন হয়ে যায়। তার মধ্যে কয়েকটা দলীয় লোক তাদের নেতাদের ভয়ভীতি দেখে আমাদের কাছে প্রতিদিন ২০/৩০ টাকা করে নেয়। আমরা খুব কষ্ট করে জীবন যাপক করি। আমরা যদি তাদের টাকা না দেই বাবা, তাহালে তারা আমাদেরকে মারপিট করে, রাস্তায় গাড়ী চালাতে দেয় না। আমরা নিরূপাই হয়ে তাদেরকে টাকা দেই।

সদর পুলিশ ফাড়িঁর ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ এস আই (নিঃ) মোঃ খোরশেদ আলম রবি জানানঃ গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অদ্য ১২ টার দিকে ১ জনকে ইজিবাইকে চাঁদা আদায়ের সময়, চাঁদা আদায়ের টাকাসহ হাতে নাতে আটক করি। তার বিরুদ্ধে একটি সদয় থানায় নিয়মিত মামলা রুজু করা হয় এবং তাকে বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়।

তিনি আরো বলেন, এই সদর ফাড়িঁতে আমি যতদিন আছি, ততদিন আমার ফাড়িঁ এলাকাতে যে দলের নেতাই হোক, যত ক্ষমতাশালী নেতাই হোক কোন চাঁদাবাজি, সস্ত্রাসী অপকর্ম করতে পারবে না। যদি করেও তাহলে তাদেরকে আইনের বেড়াজালে বন্দী হতে হবে।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button