খেলাধুলা

মুশফিক-শান্তর লড়াই দিয়ে পর্দা উঠবে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের

বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের পর্দা উঠতে যাচ্ছে মঙ্গলবার। উদ্বোধনী ম্যাচে মুখোমুখি হবে মুশফিকুর রহিমের বেক্সিমকো ঢাকা ও নাজমুল হোসেন শান্তর মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী। ম্যাচ শুরু হবে দুপুর ১টা ৩০ মিনিট থেকে।

দুই দলেই রয়েছে তারুণ্যের আধিক্য। তবে শক্তির বিচারে কিছুটা পিছিয়ে পড়েছে রাজশাহী। প্লেয়ার্স ড্রাফটের প্রথম ডাকেই দলে নেয়া মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন ছিটকে পড়েছেন টুর্নামেন্ট শুরুর আগেই।

রোববার দলীয় অনুশীলনের আগে ফুটবল খেলতে গিয়ে গোড়ালিতে চোট পান এই অল-রাউন্ডার। এতে অন্তত এক সপ্তাহ থাকতে হচ্ছে মাঠের বাইরে।

সাইফউদ্দিন ছাড়াও দলে আছেন মোহাম্মদ আশরাফুল, আরাফাত সানী, ফরহাদ রেজা, সানজামুল ইসলামদের মতো অভিজ্ঞরা। আছেন টেস্ট দলের নিয়মিত সদস্য এবাদত হোসেন।অভিজ্ঞরা থাকলেও তরুণদের উপর চোখ রাখতে হবে। গত বিপিএলে গতির ঝড় উঠানো মুকিদুল ইসলাম আছেন দলে।

সোমবার অনুশীলন শেষে রাজশাহীর অধিনায়ক শান্ত জানালেন দল নিয়ে নির্ভার তিনি।

‘এখন সবাই সবার জায়গা থেকে ভালোভাবে প্রস্তুত। আমার কাছে মনে হয় সবাই ব্যক্তিগতভাবে নিজের ফিল্ডিং অনুশীলন নিয়মিত করে। যেটা বললাম তরুণ ক্রিকেটারও অনেক আছে। সবদিক চিন্তা করলে কম্বিনেশন ভালো। মনে হয় না ফিল্ডিং সমস্যা হবে। ’

সাইফউদ্দিনের না থাকা নিয়ে শান্ত জানান, ‘সাইফউদ্দিন অনেক গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় ছিল আমাদের। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত হয়তো বা প্রথম ছয়-সাতদিন আমরা পাচ্ছি না। প্রেসিডেন্টস কাপে সে পুরোপুরি ফিট ছিল। শতভাগ এফোর্ট দিয়েই খেলেছে।’

রাজশাহীর প্রতিপক্ষ বেক্সিমকো ঢাকায় আছে জাতীয় দলের বেশ কয়েকজন। কাগজে কলমে এগিয়ে থাকবে মুশফিকের দল। অনূর্ধ্ব-১৯ দলের ওপেনার তানজিদ হাসান তামিম দারুণ খেলেছিলেন বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপে। নাসুম আহমেদ, নাঈম শেখ, মেহেদী হাসান রানা, সাব্বির রহমানদের মতো খেলোয়াড় আছে এই দলে।

সব মিলে রোমাঞ্চিত মুশফিক অপেক্ষায় আছেন ভালো একটা টুর্নামেন্টের। আরও জানালেন, নিজের দলটা বেশ ব্যালেন্সড।

‘আমরা তো সবাই চাই খুব ভালো একটা টুর্নামেন্ট হবে। এই বছরই প্রথম লোকাল টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হবে। খুবই রোমাঞ্চিত। আশা করছি বেক্সিমকো ঢাকার হয়ে যাতে খুব ভালো একটা শুরু করতে পারি এবং সেটা যেন শেষ করতে পারি। আমি মনে করি সবদিক থেকে আমাদের দলের ব্যালেন্সটাও খুব ভালো আছে। আমাদের এখন মাঠের কাজটা মাঠে করতে হবে।’

ঢাকার মতো বড় দলের হয়ে খেলার জন্য মুখিয়ে থাকা মুশফিক প্রতিদান দিতে চান তাকে দলে নেয়ার।

‘সবারই স্বপ্ন থাকে এমন বড় বড় টিমে খেলার। বিশেষত ঢাকায়। আমি খুব ভাগ্যবান যে তারা এবার আমাকে নিয়েছে। আমি চেষ্টা করবো আমার অনুযায়ী প্রতিদান দেয়ার।’

বেক্সিমকো ঢাকা: মুশফিকুর রহিম, রুবেল হোসেন, তানজিদ হাসান তামিম, নাসুম আহমেদ, নাঈম শেখ, নাঈম হাসান, শাহাদাত হোসেন দিপু, আকবর আলি, ইয়াসির আলি রাব্বি, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান রানা, মুক্তার আলি, শফিকুল ইসলাম, আবু হায়দার রনি, পিনাক ঘোষ, রবিউল ইসলাম রবি।

মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহী: মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, শেখ মেহেদী, নাজমুল হোসেন শান্ত, নুরুল হাসান সোহান, ফরহাদ রেজা, মোহাম্মদ আশরাফুল, আরাফাত সানি, ইবাদত হোসেন, ফজলে মাহমুদ রাব্বি, , রনি তালুকদার, আনিসুল ইমন, রেজাউর রহমান, জাকের আলি অনিক, রকিবুল হাসান (সিনিয়র), মুকিদুল ইসলাম মুগ্ধ, সানজামুল ইসলাম।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button