বগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়ায় করোনাকালীন সময়ে অনন্য ভুমিকায় ফুলবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ি

বগুড়া প্রতিনিধি: বগুড়ায় করোনার মহামারির শুরু থেকেই জীবনের ঝুঁকি নিয়ে জনগণকে সচেতন করার জন্য মাঠে ময়দানে কাজ করছে ফুলবাড়ী ‍পুলিশ ফাঁড়ীর সদস্যরা। তারা প্রতিনিয়তই মানুষকে করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত থাকতে সচেতন করছেন। বর্তমানে ফুলবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ী আওতাধীন কোন ব্যক্তির করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসার সঙ্গে সঙ্গে তার সাথে ফোনে কথা বলে আক্রান্ত ব্যক্তিকে মনে সাহস যুগাচ্ছেন এবং আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ির আশে পাশের লোকজনকে সচেতন করার লক্ষ্যে ও সংক্রমণ ঠেকাতে ফেসবুক লাইভে এসে লকডাউন প্রক্রিয়া চালাচ্ছেন ইনচার্জ মো: শফিকুল ইসলাম।

অনেক সদস্য শুধুমাত্র মাস্ক পড়েই দায়িত্বপালন করছেন। ভিন্ন এক বাস্তবতার মুখোমুখি হয়ে দায়িত্ব পালন করতে হচ্ছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যদের। সাধারণ দায়িত্বের বাইরে অসহায় মানুষের কাছে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন তারা।

ইনচার্জ মো: শফিকুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা চেষ্টা করছি, কতোটা মানুষের পাশে থাকা যায়। এখন সেটাই পুলিশের জন্য খুব জরুরি কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছে।’

এছাড়া করোনার এই মহামারির সময়েও বগুড়া জেলার পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞা বিপিএম (বার) এর নেতৃত্বে, সদর সার্কেল এর অতি:পুলিশ সুপার সনাতন চক্রবর্তী ও সদর থানার ইনচার্জ এসএম বদিউজ্জামান এর দিকনির্দেশনায় ফুলবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ীর ইনচার্জ মো: শফিকুল ইসলাম ও তার টিম ফুলবাড়ী, রাজাপুর, ডাকুরচক এলাকায় ৩ রাত ৩ দিন নৌকার ভেতরে থেকে বালু উত্তোলন বন্ধ করেছে।

সেখানকার এলাকাবাসীর সাথে কথা বলে জানা যায়, গত ২০-২৫ বছর ধরে বালু উত্তোলন চলছে যা অনেক বার বন্ধ করা হলেও পুনরায় চালু হয়েছে। এখানে রাত করে ৫০-৬০ টি করে মেশনি দ্বারা বালু উত্তোলন হয় এবং গ্রামের ভেতর দিয়ে ট্রাকে করে নিয়ে শব্দে তাদের রাতের ঘুম হারাম হয়ে যায়। ২০-২৫ বছর ধরে হয়ে আসা বালু উত্তোলন বন্ধ করায় ফুলবাড়ী পুলিশ ফাঁড়ির প্রতি ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছে তারা।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button