আন্তর্জাতিক খবরকরোনা আপডেট

ইতালিতে ৪ মে থেকে শিথিল হচ্ছে লকডাউন

২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের হুবেই প্রদেশের রাজধানী উহান থেকে ছড়িয়ে পড়ে মরণঘাতী করোনাভাইরাস। যুক্তরাষ্ট্রের জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটে দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, এ পর্যন্ত বিশ্বে প্রায় ৩০ লাখ মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে। প্রাণ হারিয়েছে, ২ লাখ ৬ হাজার ৫৬৯ জন। বিশ্বে সবচেয়ে বেশি প্রাণহানি হয়েছে যুক্তরাষ্ট্রে। এর পর পরই রয়েছে ইতালির অবস্থান। গত ৯ মার্চ থেকে ইতালীয়রা লকডাউনের মধ্যে আছে। এ পর্যন্ত ইতালিতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ২৬ হাজার ৬৪৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। তবে কয়েক সপ্তাহের তুলনায় রবিবার দেশটিতে প্রাণহানি হয়েছে সবচেয়ে কম। এ অবস্থায় ইতালির প্রধানমন্ত্রী জানান, বেশ কিছু ক্ষেত্রে ৪ মে থেকে লকডাউন শিথিল হবে।

টেলিভিশনে দেওয়া ঘোষণায় কন্তে করোনাভাইরাস লকডাউন শিথিলের রূপরেখা তুলে ধরেন। সে অনুযায়ী, ৪ মে থেকে অল্প অল্প করে লোকজনকে তাদের আত্মীয়-স্বজনদের দেখতে যাওয়ার অনুমতি দেওয়া হবে, তবে তাদের বাধ্যতামূলকভাবে মাস্ক পরতে হবে। লোকজনকে তাদের নিজ অঞ্চলের মধ্যে ঘোরাফেরার অনুমতি দেওয়া হবে, কিন্তু তারা অন্য অঞ্চলে যেতে পারবেন না। শেষকৃত্য আবার শুরু হবে, কিন্তু সর্বোচ্চ ১৫ জন উপস্থিত থাকতে পারবেন এবং উন্মুক্ত স্থানে করতে হবে। ৪ মে থেকে খাবার বিক্রির জন্য বার ও রেস্তোরাঁগুলো খোলা হবে এবং অবশ্যই ক্রেতারা খাবার কিনে বাড়িতে অথবা অফিসে নিয়ে খাবে। পার্কগুলোও খুলে দেওয়া হবে, তবে স্কুলগুলোতে সেপ্টেম্বরের আগে ক্লাস শুরু হবে না।

সামনের মাসগুলোতেও সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনে চলার ওপর জোর দিয়েছেন কন্তে। গির্জায় উপাসনা বন্ধ থাকবে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

এর আগে ১৪ এপ্রিল বিধিনিষেধ শিথিলের প্রথম ধাপে বইয়ের দোকান, ড্রাই ক্লিনার্স ও স্টেশনারির মতো ছোট কিছু দোকান খোলার অনুমতি দেওয়া হয়েছিল।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button
error: Content is protected !!