আন্তর্জাতিক খবর

বিশ্ব সেরা মায়ের পুরস্কারে ভূষিত হলেন এক পুরুষ!

সবাই জানতেন, শিশুটি ভুগছে ডাউন সিনড্রোমে। তারপরেও তাকেই ২০১৬ সালে বুকে তুলে নিয়েছিলেন ভারতের মহারাষ্ট্র রাজ্যের পুণেতে বাস করা আদিত্য তিওয়ারি। রবিবার, আন্তর্জাতিক নারী দিবসে তিনিই পেলেন ‘বিশ্বের সেরা মা’ এর সম্মান। ভারতের একটি সংস্থা তাকে এই সম্মানে ভূষিত করেছে। ব্যাঙ্গালুরুতে নারী দিবসে তার হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। খবর এনডিটিভির।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দত্তক পুত্রকে মায়ের মতোই স্নেহে-যত্নে গত চারবছর ধরে লালন করে আসছেন আদিত্য। বাবা হয়েও তিনি মায়ের সমান। আদিত্যও মানেন সেটা। তার মতে, সন্তানপালনে লিঙ্গভেদ থাকা বাঞ্ছনীয় নয়। একজন মা যেভবে সন্তানকে বড় করেন একজন বাবাও সমান যত্ন নেন সন্তানের।

আদিত্য জানান, ‘দেড় বছর লড়াইয়ের পরে ২০১৬ সালের পহেলা জানুয়ারি অবনীশের আইনি হেফাজত পেয়েছি। তারপর থেকে আমরা বাবা-ছেলে মিলে প্রচুর সংগ্রাম করেছি। অবনীশ আমার কাছে ঈশ্বরের আশীর্বাদ। নিজেকে কখনও একা বাবা বলে মনেই করিনি। সারাক্ষণ ছেলের যত্ন নিয়েছি নিজের মতো করে। আমিও ওর মা, আমিই ওর বাবা।’

তিনি বলেন, ‘অবনীশ আমাকে শিখিয়েছে কীভাবে একইসঙ্গে ভালো মা-বাবা হওয়া যায়। মায়েরাই কেবল সন্তানের সঠিক দেখভাল করতে পারেন, বাবারা নন, এই সেকেলে ধারণা ভাঙতে চেয়েছি আমি।’

আদিত্য তিওয়ারি অবনীশকে দত্তক নেওয়ার পরে আইটি ফার্মের চাকরি ছেড়ে দিয়েছিলেন এবং বাচ্চাদের মা-বাবাকে নানা পরামর্শ বা টিপস দিতে শুরু করেন। প্রতিবন্ধী শিশুদের একা হাতে বড় করে তোলার উপায় নিয়ে একটি সম্মেলনে অংশ নিতে তাকে জাতিসংঘেও আমন্ত্রণ জানানো হয়।

সম্পর্কিত পোস্ট

Back to top button
error: Content is protected !!