উপজেলাশেরপুর উপজেলা

নিখোঁজের ৩ দিন পর নদী থেকে যুবকের লাশ উদ্ধার

বগুড়ার শেরপুরে বাঙালি নদী থেকে এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছেন পুলিশ। নিখোঁজ হওয়ার ৩ দিন পর আজ ৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার দুপুরে সুঘাট ইউনিয়নের সূত্রাপুর এলাকায় বাঙালি নদীতে মাছ ধরার সময় জেলেদের জালে লাশটি উঠে আসে।

নিহত যুবকের নাম মো. শহিদুল ইসলাম (৩৫) সে শেরপুর উপজেলার সুত্রাপুর গ্রামের মৃত. জালাল উদ্দীনের ছেলে। শেরপুর থানার উপ পুলিশ পরিদর্শক (এসআই) আতোয়ার রহমার এই তথ্য নিশ্চিত করেন।

স্থানীয় লোকজনের কাছে জানা যায়, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য বগুড়ায় শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের স্ত্রী সালমা বেগমকে (২৮) আটক করা হয়েছে। এই ঘটনা সম্পর্কে নিহতির আত্মীয়-স্বজনের কাছ থেকে আরও জানা যায়, গত মঙ্গলবার ৭ জানুয়ারি সন্ধ্যা রাতে শহিদুল ইসলাম বাড়ির পাশে বাঙালি নদীর ঘাট থেকে পানি আনতে যায়, এরপর আর বাড়ি ফেরেনি। ৯ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার তার লাশটি নদীতে পাওয়া যায়।

অনেকের মতে, এই ঘটনার পেছনে তার স্ত্রী সালমার হাত আছে। কারণ, ঐ এলাকার একটি যুবকের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরেই নিহতের স্ত্রী সালমা বেগমের পরকীয়ার সম্পর্ক ছিল। তাই পরকিয়ার জের ধরেই শহিদুলকে হত্যা করতে পারেন বলে অভিযোগ করেন তারা।

উক্ত ঘটনায় শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. হুমায়ুন কবির এ প্রসঙ্গে বলেন, ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button
ভাষা নির্বাচন