বগুড়া সদর উপজেলা

বগুড়ায় বিআরটি’র নকল জাল কাগজপত্র দস্তাবেজসহ ৫জন গ্রেপ্তার

বগুড়া সদর থানা পুলিশের এক সফল অভিযানে বিএসটিআই কর্তৃপক্ষের বিপুল পরিমান মোটরযান সংক্রান্ত যাবতীয় নকল ও জাল কাগজপত্র দলিল দস্তাবেজ সিল মোহড় সহ আন্তজেলা সংঘবদ্ধ চক্রের ৫সক্রিয় সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

বিজ্ঞাপন

গ্রেপ্তারকৃতরা হল,বগুড়ার কাহালু উপজেলার দিপুইল গ্রামের আবদুর মোতালেবের পুত্র দেলোয়ার হোসেন (২৪)একই উপজেলার আড়োলা গ্রামের হযরত আলীর পুত্র শফিকুল ইসলাম(৫২)আশোকোলা গ্রামের মৃত মজিবর রহমানের পুত্র আনোয়ার হোসেন সোহাগ ((৪০)বগুড়া সদরের বাঘোপাড়া মধ্যপাড়া এলাকার নূরুল ইসলামের পুত্র রতন প্রাং(৫০)শিবগঞ্জ উপজেলার সুদামপুর এলাকার মৃত শসের আলীর পুত্র আবদুর বাছেদ(৫০)।

এসময় তাদের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয়েছে নকল ও জাল বিপুল পরিমান যানবাহন রেজিষ্ট্রেশন এর কাগজ পত্র, ফিটনেশ সার্টিফিকেট,ট্যাক্স টোকেন,ট্রাফিক পুলিশের কেস শ্লিপ প্যাড,সিল মোহর,অফসেট প্লেট সহ ইন্সুরেন্স তৈরীর উপকরন সিল মোহড় কম্পিউটর পিসি ,হার্ড ডিক্স ব্যাঙ্ক ,বীমা অফিস সহ বিভিন্ন জেলা বিএসটিআই অফিসের সিলমোহড় ইত্যাদি।

পুলিশের একটি দায়িত্বশীল সূত্র জানায়, বগুড়া শহর ও এর আশপাশের এলাকায় সঙ্গবদ্ধ একটি চক্র দীর্ঘ দিন যাবত বিএসটিআই বগুড়া সহ বিভিন্ন জেলা সেংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের মোটরযান সংক্রান্ত যাবতীয় নকল কাগজপত্র দলিল দস্তাবেজ, সিল মোহড়, যানবাহন রেজিষ্ট্রেশন এর কাগজ পত্র, ফিটনেশ সার্টিফিকেট,ট্যাক্স টোকেন,ট্রাফিক পুলিশের কেস শ্লিপ প্যাড,সিল মোহর,অফসেট প্লেট সহ ইন্সুরেন্স তৈরীর জাল কাগজপত্র তৈরীর মাধ্যমে আসল সার্টিফিকেট হিসাবে লোকজনের নিকট উচ্চ মূল্যে বিক্রি ও বিপনন করে লক্ষ লক্ষ টাকা আত্বসাৎ করে আসছিল। এতে করে এক দিকে যেমন মোটরযান মালিকরা প্রতারিত হচ্ছিলেন, অন্য দিকে সরকার তার রাজস্বখাত প্রাপ্তি থেকে বঞ্চিত হচ্ছিলেন।

এমনি এক গোপন সাংবাদের উপর ভিত্তি করে দীর্ঘদিন যাবত পুলিশ চক্রটিকে সনাক্ত করন ও তাদের গতীবিধির উপর নজর রাখতে শুরু করে। তারই ধারাবাহিকতায় গত ১৮ সেপ্টেম্বর তারিখ বিকাল থেকে গভীর রাত পর্যন্ত শহরের চক সুত্রাপুর,বাদুড়তলা,সাতমাথা ,সাপলা মার্কেট সহ বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালায় পুলিশ।

বগুড়া সদর থানা পুলিশের কর্মকর্তা ইনচার্জ (ওসি সার্বিক)এসএম বদিউজ্জামান এর সার্বিক তত্বাবধানে ইন্সপেক্টর রেজাউল করিম রেজা, সদয় ফাঁড়ী পুলিশের ইন্সপেক্টর আবুল কালাম আজাদ,ফাঁড়ীর এসআই জিলালুর এএসআই আলমাস আলী এ টিএসআই খলিলুর রহমানের সমন্বয়ে পুলিশের একাধিক টিম সঙ্গবদ্ধ চক্রের ৫ নকল বাজকে আটক করে। এ সময় তাদের হেফাজত থেকে উদ্ধার করা হয় বিপুল পরিমান যানবাহন সংক্রান্ত নকল ও জাল কাগজপত্র ,উপকরন সামগ্রী। এদ্বত সংক্রান্ত ঘটনায় পুলিশ বাদী হয়ে আটক চক্রের বিরুদ্ধে ধারা-৪২০/৪৬৭/৪৬৮/৪৭১/১০৯ পেনাল কোড আইনে একটি মামলা রজু করেছে।

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button