উপজেলাগণমাধ্যম সংক্রান্তশেরপুর উপজেলা

বগুড়ার শেরপুরে ফিটনেসবিহীন গাড়ি দিয়ে শিক্ষার্থী বহন

বগুড়ার শেরপুরে সড়ক-মহাসড়কে ফিটনেসবিহীন বাস, লেগুনা সহ ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা চলাচল নিষিদ্ধ। তবে এ উপজেলার অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেই এসব নিষিদ্ধ যানবাহন দিয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। ফলে যে কোনো সময় বড় দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন অভিভাবকেরা।

সচেতন মহলের দাবি করছে, যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ফিটনেসবিহীন বাস, লেগুনাসহ ব্যাটারী চালিত অটোরিক্সা দিয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধা দিচ্ছে, সেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চিহিৃত করে দ্রুত আইনের আওতায় আনার।

সরেজমিনে দেখা যায়, ফিটনেববিহীন বাস, লেগুনাসহ ব্যাটারিচালিত অটোরিক্সা মহাসড়কে চলাচল নিষিদ্ধ থাকলেও শেরপুর উপজেলায় অনেক শিক্ষা প্রতিষ্ঠানই এসব নিষিদ্ধ যানবাহন দিয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধা দিচ্ছে।

শুধু তাই নয়, এসব ফিটনেসবিহীন বাস ও লেগুনার মধ্যে আবার অধিকাংশেরই চালকরাও যথাযথ দক্ষ নয় বলে অভিযোগ রয়েছে। ফলে স্কুল শেষে শিক্ষার্থীরা বাড়ি না ফেরা পর্যন্ত প্রতিটি অভিভাবকই থাকেন এক অজানা শঙ্কায়।

অভিবাবক খায়রুল জানান, আমরা সবসময় আতঙ্কে থাকি যত সময় না আমাদের সন্তান স্কুল থেকে বাড়ি না ফেরে।

এ ব্যপারে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার নজমুল হক বলেন, বিষয়টি তদন্ত সাপেক্ষে অভিযুক্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলোকে আইনের আওতায় আনা হবে।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা লিয়াকত আলী সেখ বলেন, যেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ফিটনেসবিহীন বাস ও লেগুনা দিয়ে শিক্ষার্থীদের পরিবহন সুবিধা দিচ্ছে সেসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চিহিৃত করে আইনের আওতায় এনে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

বিজ্ঞাপন

এ বিভাগের অন্য খবর

Back to top button